ঢাকা, সোমবার 18 September 2017, ০৩ আশ্বিন ১৪২8, ২৬ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার বিভিন্ন গ্রামে গরু চুরির হিড়িক

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদা উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়নে গরু চুরির হিড়িক পড়েছে। গত এক সপ্তাহে ইউনিয়নের গোপিনাথপুর, রামনগর ও কলাবাড়ি থেকে ৮টি গরু চুরি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এলাকায় রাতে পুলিশ টহলে থাকলেও পরপর চুরি মেনে নিতে পারছে না এলাকাবাসী। তাছাড়া চোরের ফেলে যাওয়া মোবাইলফোন ও সিম উদ্ধার করে পুলিশে দিলেও পুলিশ চোরের টিকি ছুতে পারছে না। স্থানীয়রা জানিয়েছে, গত বুধবার গোপিনাথপুর থেকে গরু চুরি করে খালের রাস্তার বটতলায় মিনি ট্রাকে গরু তোলার সময় চোরের একটি রবি সিমসহ নোকেয়া মোবাইলফোন ফেলে যায়। মোবাইলফোনটি দামুড়হুদা থানায় জমা দিয়ে লিখিত একটি অভিযোগ করা হয়। দুইরাত পরে আবারো পাশের গ্রাম রামনগর মাঠপাড়ায় দুটি পরিবারের একই কৌশলে লোহার শিকল কেটে ৩টি গরু চুরি করে।
শুক্রবার রাত আড়াইটার দিকে জুড়ানপুর ইউনিয়নের রামনগর মাঠপাড়ায় জামাল উদ্দিনের ছেলে মাসুমের গোয়ালঘরের লোহার শিকল কেটে ও গরুর গলায় লোহার শিকল কেটে ২টি গরু নিয়ে যায়। একই পাড়ার জয়নাল উদ্দিনের ছেলে মালেকের গোয়াল থেকে একই কৌশলে একটি গরু নিয়ে গেছে। বুধবার রাত আড়াইটার দিকে গোপিনাথপুর গ্রামের গোরস্থানপাড়ার আলেক হোসেনের ছেলে মালেকের বাড়িতে গ্রিল কাটা মেশিন দিয়ে গেট কেটে, বাড়ির মধ্যে প্রবেশ বাড়ির লোকজনের জেগে আছে বুঝতে পেরে ফিরে এসে একই গ্রামের মাঠপাড়ায় মৃত মগবুলের ছেলে আজিবারের জানালার পাশে থাকা ১৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি মোবাইলফোন চুরি করে, মৃত বরকত আলীর ছেলে টোকনের বাড়ি বাঁশের বেড়ায় মারা লোহার শিকল কেটে ও গরুর গলায় লোহার শিকল কেটে একটি গরু ও একই পাড়ার মৃত চান্দুর ছেলে মহাসিনের বাড়িতেও বাঁশের বেড়ায় মারা লোহার শিকল কেটে ও গরুর গলায় লোহার শিকল কেটে একটি গরু খুলে কয়েকশ গজ দূরে বটতলা থেকে পিকআপে অথবা লাটাহাম্বারে করে নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে। ওই রাতে চোরের দল গরু গাড়িতে তোলার সময় একটি মোবাইলফোন ফেলে যায়। ইউপি সদস্যের সহযোগিতায় মোবাইলফোনটি দামুড়হুদা থানায় জমা দেন, পুলিশ হয়তো মোবাইলের সূত্র ধরে চোর ধরতে পারবে এই আশায়। এলাকাবাসী আরও অভিযোগ করে বলেছে, এর কয়েকদিন আগে ইউনিয়নের কলাবাড়ি গ্রাম থেকে ৩টি গরু চুরি হয়েছে বলে জানা যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ