ঢাকা, মঙ্গলবার 19 September 2017, ০৪ আশ্বিন ১৪২8, ২৭ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

এ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করলেন রাজীব ও নাদিয়া সামদানি

ব্যক্তিগতভাবে শিল্পকলার অনন্য পৃষ্ঠপোষকতার জন্য আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সম্মাননা পেলেন রাজীব ও নাদিয়া সামদানি। মধ্যপ্রাচ্য ও দক্ষির্ণ এশিয়ার মধ্যে এই প্রথম কেউ এই সম্মান অর্জন করলেন।

দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত-মন্টব্লাঙ্ক দ্য লা কালচার আর্টস প্যাট্রনেজ এ্যাওয়ার্ড একটি বাৎসরিক সম্মাননা পুরস্কার যা ১৯৯২ সালে যাত্রা শুরু করে। সমকালীন সময়ের শিল্প পৃষ্ঠপোষকদের উৎসাহ ও স্বীকৃতি দেয়ার জন্য এই এ্যাওয়ার্ড চালু করা হয়। মধ্যপ্রাচ্য ও দক্ষিণ এশিয়ায় ২০১৭ সালেই প্রথমবারের মত এটি আয়োজিত হচ্ছে। ঢাকা আর্ট সামিট ও সামদানী আর্ট ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে শিল্পের পৃষ্ঠপোষকতার জন্য রাজীব ও নাদিয়া সামদানিকে দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনের মাধ্যমে সম্মাননা হস্তান্তর করা হয়। সামদানি আর্ট এ্যাওয়ার্ড এর পাশাপাশি সামদানি আর্ট ফাউন্ডশেন বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে সমকালীন শিল্প ও শিল্পীর প্রচার নিয়ে কাজ করে। 

মন্টব্লাঙ্ক কালচারাল ফাউন্ডেশন ১৯৯২ সাল থেকে ২৫ বছর ধরে শিল্প ও শিল্পীদের পৃষ্ঠপোষকদের স্বীকৃতি দিয়ে আসছে। মন্টব্লাঙ্ক দ্য লা কালচার প্যাট্রনেজ এ্যাওয়ার্ডকে পৃষ্ঠপোষকদের জন্য পৃথিবীর শীর্ষ পুরস্কার হিসেবে বিবেচনা করা হয়।  এই অনুষ্ঠানটি ১৩ই সেপ্টেম্বর দুবাইয়ের আলসার্কাল এভিনিউ এ অবস্থিত কঙ্কক্রিটে অনুষ্ঠিত হয় এবং তা পরিচালনা করেন মন্টব্লাঙ্ক কালচারাল ফাউন্ডেশনের চেয়্যারম্যান স্যাম বারডাউইল এবং টিল ফেলরাথ। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই রাজীব এবং নাদিয়া সামদানিকে পুরস্কৃত করা হয়। এই পুরস্কারের সাথে ১৫,০০০ ইউরো প্রদান করা হয়েছে যা সামদানি দম্পতি বাংলাদেশী শিল্পীদের উন্নয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা এ্যাকাডেমিকে দান করবেন। রাজীব এবং নাদিয়া সামদানি বাংলাদেশী সমকালীন শিল্প ক্ষেত্রে উন্নয়ন এবং শিল্পী ও স্থপতিদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে ২০১১ সালে সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশনের সূচনা করেন। সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশন বাংলাদেশী এবং দক্ষিণ এশীয় নবীন শিল্পীদের আর্ন্তজাতিক প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করতে সহায়তা করে এবং বিভিন্ন ওয়ার্কশপ, রেসিডেন্সি এবং শিক্ষাকার্যক্রম আয়োজন করে থাকে। রাজীব সামদানি যুক্তরাজ্যে বিখ্যাত টেট মিউজিয়ামের দক্ষিণ এশীয় অধিগ্রহণ কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও কো-চেয়্যারম্যান এবং তারা দুজনেই এই মিউজিয়ামের আর্ন্তজাতিক কাউন্সিলের সদস্য। রাজীব ও নাদিয়া সামদানি যুক্তরাষ্ট্রের হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিন এশীয় আর্টস্ কাউন্সিলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, দুবাইয়ের আলসার্কাল এভিনিউ প্রোগ্রামিং কমিটির সদস্য, আর্ট দুবাই এবং শ্রীলংকার কলোম্বো দ্বিবার্ষিক প্রদর্শনীর উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ