ঢাকা, মঙ্গলবার 19 September 2017, ০৪ আশ্বিন ১৪২8, ২৭ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

গাজীপুরে সিটি মেডিক্যাল কলেজে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ বর্জন করে মানববন্ধন

গাজীপুর সংবাদদাতা : গাজীপুরে অনিয়মের প্রতিবাদে এবং কলেজ মাইগ্রেশনের দাবিতে সোমবার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন, মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে।
আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা সংলগ্ন ইটাহাটা এলাকাস্থিত সিটি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ২০১৩-১৪, ২০১৪-১৫ ও ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিবিএস কোর্সে ভর্তি হয়। এ কলেজের নিজস্ব কোন ভবন, জমি ও ক্যাম্পাস নেই। এছাড়া হাসপাতালের অনুমোদন ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রীও নেই। এ মেডিকেল কলেজে বর্তমানে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর জন্য পর্যাপ্ত শিক্ষকও নেই। বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) নীতিমালা মেনে না চলার কারণে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রম এবং বিএমডিসির অনুমোদন স্থগিত করা হয় এবং সকল শর্ত পূরণ করার জন্য এক বছর সময় দেয়া হয়। কিন্তু নির্ধারিত এসময়ের মধ্যেও কলেজ কর্তৃপক্ষ সরকারি শর্ত পূরণ করতে পারেনি। ফলে, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রম সম্পর্কে প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত বহাল রাখে। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যৎ শিক্ষা জীবন নিয়ে অনিশ্চিয়তার দিকে ধাবিত হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা অনুমোদনহীন মেডিকেল কলেজে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালাতে অনিচ্ছুক। এরপ্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা বিএমডিসি কর্তৃক অনুমোদিত মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করার জন্য দাবি জানায়।
মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী তাসমিনা আনিকা জানান, শিক্ষার্থীরা প্রায় ১৬ লাখ টাকা দিয়ে এ মেডিকেল কলেজে ভর্তি হন। তারা প্রতিবছর সেশন ফি বাবদ ৭২ হাজার টাকা এবং প্রতিমাসে ৮ হাজার টাকা করে বেতন দিচ্ছেন। আর অন্যান্য ফি তো রয়েছেই। অথচ কলেজ কর্তৃপক্ষের অনিয়ম, দুর্নীতি আর অবহেলার কারণে শিক্ষার্থীরা শেষ পর্যায়ে এসে এখন চরম অনিশ্চিয়তায় পড়েছে।
কলেজের পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন জানায়, এ কলেজে নেপাল ও ভারতের অন্তত ২৭জন শিক্ষার্থীসহ তিন শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছেন। ওই তিন ব্যাচের অনুমোদন ও রেজিস্ট্রেশনের শর্তপূরণের জন্য কলেজের অধ্যক্ষ, চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের বিভিন্ন সময় তাগিদ দিলেও তারা এ ব্যাপারে কোন সাড়া দেয় নি। এতে শিক্ষার্থীদের মাঝে হতাশা ও অসন্তোষ দেখা দেয়।
বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কলেজ কর্তৃপক্ষের এসব অনিয়মের প্রতিবাদে এবং ওই মেডিকেল কলেজ থেকে অন্য মেডিকেল কলেজে মাইগ্রেশনের দাবিতে সোমবার সকাল হতে ক্লাস বর্জন, বিক্ষোভ ও সমাবেশ করে। এসময় তারা  বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।
সমাবেশে বক্তারা কলেজের ওই তিন ব্যাচের শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা করতে না পারলে অন্য কোন অনুমোদিত কলেজে তাদের মাইগ্রেশনের সুযোগ করে দেয়ারও দাবি জানায়।
এব্যপারে কলেজ সেক্রেটারি অশোক কুমার রায় বলেন, বিএমডিসি এ কলেজ প্রতিষ্ঠার পর প্রথম দুই বছর ছাড়া অন্য শিক্ষাবর্ষের জন্য অনুমোদন না দিলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২০১৩-২০১৪ এবং ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের জন্য শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দিয়েছে। তবে পরবর্তী শিক্ষাবর্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের পর বিএমডিসি তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ