ঢাকা, সোমবার 25 September 2017, ১০ আশ্বিন ১৪২8, ০৪ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ঝালকাঠি পৌরসভার সড়ক উন্নয়ন কাজ শুরু

মোঃ আতিকুর রহমান, ঝালকাঠি: ঝালকাঠি পৌর শহরের সড়কগুলো নতুন করে টেকসই ভাবে নির্মাণের কাজ শুরু হলে একটি মহল নানা অপতৎপরতা ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বাধাগ্রস্ত করার প্রচেষ্টায় মেতে উঠেছে।
ইতিপূর্বে বর্তমান শিল্পমন্ত্রীর একান্ত প্রচেষ্টায় ‘মাঝারি শহর প্রকল্পের আওতায়’ বেশ কিছু সড়ক নির্মাণ করলেও মাত্র দু’বছরের মধ্যে সকল রাস্তা খানাখন্দ ও ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে জনদূর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে।
যার প্রেক্ষিতে বর্তমান মেয়র নতুন করে শহরের জনগুরুত্বপূর্ণ ৫টি সড়ক নির্মাণ টেন্ডার করার পর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করতেই চক্রটি সেই উন্নয়ন কর্মকা- ব্যাহত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।
পৌরসভা প্রকৌশল বিভাগ ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সূত্র জানায়, সম্প্রতি ঝালকাঠি পৌরসভায় প্রায় ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এক প্যাকেজে ৫টি প্রধান সড়ক নির্মাণের টেন্ডার আহ্বান করা হয়। 
ইসলাম ব্রাদার্স নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এ কাজের দায়িত্ব পায়। সে অনুযায়ী গত জুলাই মাসে সাধনার মোড় থেকে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে হয়ে গুরুধাম ব্রিজ পর্যন্ত কাজ শুরু হয়।
‘উন্নত মানের রড, সিমেন্ট ও পাথরের আরসিসি ঢালাই দিয়ে এ সড়ক নির্মাণ কাজ চলতে তাকে। কাজের গুনগত মান দেখে সর্বস্তরের পৌরবাসী মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক প্রশংসা করেন। 
অপরদিকে বিগত দিনে উন্নয়নের নামে নি¤œমানের কাজ করে কোটি কোটি টাকা লুটপাট করেছে বলে বিষয়টি পৌরবাসীর কাছে স্পষ্ট হয়ে যায়।
বিশ্বস্ত সূত্রটি আরো জানায়, কুচক্রি মহলের অন্যতম হোতা শ্রমিকদল নেতা সাবেক মেয়র আফজাল হোসেনের ফুপাতো ভাই বাবুল হাওলাদার টেন্ডারে অনিয়মের দাবী তুলে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ প্রদান করে।
এক পর্যায়ে তারা নির্মানাধীন কাজে রডের বদলে বাঁশের কঞ্চি ব্যবহারের ভুয়া অভিযোগ তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও জেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করে। তাতেও সুবিধা করতে না পেরে তারা উচ্চ আদালতে এক রিট পিটিশন দায়ের করে উন্নয়ন ব্যাহত করার চেষ্টা চালায়।
এতসব প্রচেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে চক্রটি বর্তমানে নতুন ষড়যন্ত্রের ঝাল বুনছে বলে আশঙ্কা করছে পৌরসভা সংশ্লিষ্টরা।
এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রোপ্রাইটর মনিরুল ইসলাম তালুকদার জানান, বিগত দিনে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ২৭টি সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণ সুসম্পন্ন করেছি। ঝালকাঠি পৌরসভায় বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ১৫ কোটি টাকার ৫টি সড়ক নির্মাণের এক প্যাকেজ টেন্ডারের কার্যাদেশ পেয়েছি। এই ৫টি সড়ক নির্মাণ শেষ হলে আগামী ২০ বছরেও এসব রাস্তা ব্যবহারের অনুপযোগী হবে না।
এ উন্নয়ন কাজ ব্যাহত করতে যে যতই প্রচেষ্টা করুক না কেনো তাদের কোন ষড়যন্ত্রই সফল হবে না। ঝালকাঠি পৌরবাসীর কাছে প্রমাণ হবে টেকসই ও মানসম্মত উন্নয়ন কাকে বলে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ