ঢাকা, সোমবার 25 September 2017, ১০ আশ্বিন ১৪২8, ০৪ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রামপালে ১০টি পূজা মন্দির অধিক ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা: রামপালে হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দূর্গোৎসব পালনের সকল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। ৩৯টি সর্বজনীন পূজা মন্দিরে এবং ৩টি ব্যক্তিগত পূজা মন্দিরে এ দুর্গোৎসব পালিত হতে যাচ্ছে। মোট ৪২টি পূজা মন্দিরের মধ্যে সরকারিভাবে ১০টি মন্দিরকে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ, ১২টি কম ঝুঁকিপূর্ণ হিসাবে চিহ্নিত করে প্রশাসনিক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।  ঝুঁকিপূর্ণ পূজা মন্দিরগুলো হলো, গৌরম্ভা সার্বজনীন পূজা মন্দির, গোবিন্দপুর পশ্চিমপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, দলদাহ সার্বজনীন পূজা মন্দির, বারুইপাড়া হরিখোলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, রামপাল সদর সার্বজনীন পূজা মন্দির, শ্রীফলতলা কুন্ডুপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, ভেকটমারী বাবুরবাড়ি সার্বজনীন পূজা মন্দির, গোনাবেলাই বাস স্টান্ড সার্বজনীন পূজা মন্দির, গিলাতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির ও ফয়লা বাজার সার্বজনীন পূজা মন্দির। এ ব্যাপারে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সাবেক প্রধান শিক্ষক জয়দেব কৃষ্ণ দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, প্রতিবারের ন্যায় এবছরও শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে শারদীয় দূর্গোৎসব পালিত হবে। এ জন্য পূজা উদযাপন পরিষদ ও প্রশাসনের সমন্বয়ে কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। নিরাপত্তার ব্যাপারে রামপাল থানার ওসি মোঃ বেলায়েত হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আনসার সদস্যের পাশাপাশি পুলিশও সার্বক্ষণিকভাবে পূজা মন্দিরগুলোর নিরাপত্তায় কাজ করবে। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা তুষার পালের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আনসার, পুলিশ ও সে¦চ্ছাসেবকের সমন্বয়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে এবং প্রত্যেক মন্দিরে সরকারি কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থেকে নজরদারি করবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ