ঢাকা, সোমবার 25 September 2017, ১০ আশ্বিন ১৪২8, ০৪ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অন্যের জমি দখল করে ঘর নির্মাণ চেষ্টা

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চররুহিতায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অন্যের জমিতে ঘর তুলে দখলের চেষ্টা করেছে স্থানীয় একটি সন্ত্রাসী চক্র। গত সোমবার দুপুরে ওই এলাকার সফিকুল ইসলামের দ্বীর্ঘ বছর থেকে ভোগ দখলকৃত জমির উপর থাকা ঘর ভাঙচুর করে দখলের চেষ্টা করে তারা।
এসময় ঘর থাকা অনেক মালামাল লুট করে নিয়ে যায় গেছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।
পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।
ঘটনাটি ঘটে সদর উপজেলা চররুহিতা গ্রামে আব্দুর রহমান ভূঁইয়া বাড়ীর দরজা নামক স্থানে।
জানাগেছে,স্থানীয় সফিকুল ইসলাম গংরা দ্বীর্ঘ ৭০ বছর যাবত ক্রয়কৃত জমি ভোগ দখল করে আসছে।
গত কয়েক মাস পূর্বে ওই জমি নিজের দাবী করে ঘর তোলার চেষ্টা চালিয়ে আসছে একই বাড়ীর তোফায়েল আহমদ গং।
জমি সংক্রান্ত এ বিরোধকে কেন্দ্র করে গত শুক্রবারে নিজের পরিত্যাক্ত ঘরে আগুন লাগিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানো চেষ্টা ও জোরপূর্বক প্রতিপক্ষের ভিটে বাড়ী দখলের পায়তারা করেছে তারা।
বিভিন্ন ষড়ডন্ত্রের মাধ্যমে হয়রানী করতে চাইলে আদালতের মাধ্যমে গত ২৯ মার্চ ১৪৪ ধারা জারি করে ভোগ দখলকারী সফিকুল ইসলাম গং।
কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক ঘর তুলার চেষ্ট করে এবং ক্ষিপ্ত হয়ে একপর্যায়ে নিজ ঘরে ও সফিকুল ইসলামের পুরনো ঘর ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে  বেশ কিছু মালামাল পুড়ে দেয়।
এতে করে কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয় বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী সফিকুল ইসলাম গং।
তবে এর আগে উভয়ে পক্ষের বিরোধ থাকায় সরেজমেিন তদন্ত  শেষে গত ৭ ফেব্রুয়ারী সফিকুল ইসলামের পক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করেন স্থানীয় তহশিলদার।
ভুক্তভোগী সফিকুল ইসলাম জানান, ১৯৪৬ সনে তার বাবা জমি ক্রয় করে। দ্বীর্ঘ ৭০ বছর যাবত ভোগ দখলে আছে তিনি। কিন্তু তার প্রতিপক্ষ জমি দাবী করে বিভিন্ন সময় হমালা, মামলাসহ হয়রানী করে আসছে।
সর্বশেষ তাদের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করে তোফায়েল গংরা।
এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নেয়ার পাশাপাশি সু-বিচার চেয়ে এবং হয়রানী ও ষড়ডন্ত্রকারীদের শাস্তির দাবী  করে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে ভুক্তভোগী পরিবার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ