ঢাকা, সোমবার 25 September 2017, ১০ আশ্বিন ১৪২8, ০৪ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনায় ৫০ হাজার টাকা কেড়ে নেয়ায় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সমনজারি

খুলনা অফিস : কেসিসি মার্কেটের মধ্যে ধরে নিয়ে কিল ঘুষি মেরে ৫০ হাজার টাকা কেড়ে নেয়ায় যশোরের পুলিশ পরিদর্শক নাজমুল হাসানের বিরুদ্ধে খুলনার মুখ্য মহানগর আমলী আদালত ‘ক’ অঞ্চলে মামলা হয়েছে। গত ২০ সেপ্টেম্বর সমনজারী করেছে আদালত। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল হাসান বিভিন্নভাবে ‘ক্রসফায়ার’র হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বাদি মো. ফরিদুজ্জামান ফরিদ।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, গত ১৯ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে তিন টার দিকে কেসিসি মার্কেটের মধ্যে ধরে নিয়ে সাতক্ষীরার আশাশুনির বড়দল এলাকার মৃত আব্দুল মজিদ মোল্লার ছেলে মো. ফরিদুজ্জামান ফরিদকে বেধড়ক মারপিট করেন পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল হাসান। এ সময় তিনি নিজেকে যশোরের ওসি পরিচয় দেন। জোরপূর্বক তিনশ’ টাকার স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করিয়ে ফরিদের পকেটে থাকা ৫০ হাজার টাকা কেড়ে নেন তিনি। ওই দিন মুখ্য মহানগর আমলী আদালত ‘ক’ অঞ্চলের একটি মামলায় জয়ী হওয়ায় প্রাপ্ত সেই ৫০ হাজার টাকাই তিনি ছিনিয়ে নেন। নাজমুল হাসান খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার ঘুগরাকাটি গ্রামের মৃত রুহুল সানার ছেলে। তার সাথে সহযোগিতা করেছে সাতক্ষীরার আশাশুনি এলাকার আব্দুস সাত্তার গাজীর ছেলে মাসুম বিল্লাহ। এ ঘটনায় ওই দু’জনকে আসামি করে গত ১৯ সেপ্টেম্বর মুখ্য মহানগর আমলী আদালত ‘ক’ অঞ্চল খুলনায় মামলা দায়ের (যার নং-সিআর ৭৪১/১৭ ইং) করেন ফরিদুজ্জামান ফরিদ। পরদিন আসামির প্রতি সমনজারী করে আগামী ১৬ অক্টোবরের মধ্যে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
মামলার বাদি মো. ফরিদুজ্জামান বলেন, ‘মামলা করার পর থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে তাকে ‘ক্রসফায়ার’ দেয়ার হুমকি দিচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল হাসান। এ অবস্থায় তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ