ঢাকা, বুধবার 27 September 2017, ১২ আশ্বিন ১৪২8, ০৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যারা দেশ-জাতির জন্য অবদান রেখেছেন প্রজন্মকে তাদের কথা জানাতে হবে

সেন্টার ফর ন্যাশনাল কালচার (সিএনসি) আয়োজিত জাতীয় অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও সাহিত্যিক আবুল খায়ের মুসলেহ উদ্দিনের স্মরণ সভায় অতিথিবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, দেশ, জাতি ও এই পৃথিবীর কল্যাণ ও মঙ্গলে যারা স্থায়ী অবদান রেখেছেন, তাদের জীবন কথা প্রজন্মকে জানাতে হবে। পূর্বে এ ধরণের কাজের জন্য সরকারি দফতর বা আধাসরকারি সংস্থা ছিলো। বর্তমানে এ ধরণের কোনো ব্যবস্থা নেই। ফলে নতুন প্রজন্ম সঠিকভাবে জানতে পারছেনা কারা অতীত কল্যাণ ও মঙ্গলময় কাজ করেছেন। মিডিয়া ও তথ্য মন্ত্রণালয় এসব কাজ করছে, তবে তা প্রয়োজনে তুলনায় অপ্রতুল। 

গত সোমবার বিকেলে নজরুল একাডেমিতে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় বক্তারা এ কথা বলেন।  বেসরকারি সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সংগঠন সেন্টার ফর ন্যাশনাল কালচার (সিএনসি) জাতীয় অধ্যাপক মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও সাহিত্যিক আবুল খায়ের মুসলেহ উদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই স্মরণ সভার আয়োজন করে। কবি ফয়জুল কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক তথ্য সচিব ড. কামাল উদ্দীন আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট গবেষক শাহ আবদুল হালিম, নজরুল একাডেমির সহ-সভাপতি এম.এ. হান্নান, সাংবাদিক ওবায়দুল্লাহ, কবি মির্জা সিকান্দার, ডাঃ আব্বাস উদ্দীন, কবি নাসির হেলাল ও হাবীবাহ নাসরীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিএনসি’র নির্বাহী পরিচালক মাহবুবুল হক। 

অনুষ্ঠানের বিশেষ হক জমজমাট পর্বে ডা. আব্বাস উদ্দীনকে “ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম সিএনসি পদক-২০১৭” কবি হাবীবাহ নাসরীনকে ‘আবুল খায়ের মুসলেহ উদ্দিন সিএনসি প্রণোদনা পদক-২০১৭’ এবং সাংবাদিক মেহেদী হাসানকে ‘আরাকান সিএনসি প্রণোদনা পদক ২০১৭’ প্রদান করা হয়।  কথা ও কবিতাপাঠে অংশগ্রহণ করেন কবি আবিদ আজম, কবি সাঈদ জোবায়ের, ফরিদুল ইসলাম নির্জন, মুহসিন উদ্দীন তাজ, জাহিদ সজল, সানজিদা সূচি, ইসরাত জরিন শান্তা প্রমুখ। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন কন্ঠশিল্পী আমিনুল ইসলাম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ