ঢাকা, শনিবার 30 September 2017, ১৫ আশ্বিন ১৪২8, ০৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

১০ অক্টোবর হামলা চালাতে পারে উত্তর কোরিয়া॥ জাপানে আতঙ্ক

সংগ্রাম ডেস্ক : আগামী ১০ অক্টোবর হামলা চালাতে পারে উত্তর কোরিয়া। এই বলে সতর্ক করে দিলেন জাপানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী। ওই দিন থেকে জাপানে নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা। সে দেশের বিশেষ দিনটিকে টার্গেট করেই মিসাইল হামলা চালাতে পারেন উত্তর কোরিয়ার সর্বাধিনায়ক কিম জং উন, আশঙ্কা ইসুনরি অনো দেরার। গত ৩ সেপ্টেম্বর পিয়ং ইয়ং তাদের ষষ্ঠ ও সবচেয়ে বড় পারমাণবিক পরীক্ষাটি করার পর থেকে রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের। শীর্ষ নিউজ।

ওই দুই দেশই রাষ্ট্রসংঘের কাছে বারবার আহ্বান জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার আগ্রাসনের উপর রাশ টানার। এমনকি খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও একাধিকবার কড়া ভাষায় পিয়ং ইয়ংকে সতর্ক করলেও লাভের লাভ হয়নি। উত্তর কোরিয়ার ক্যালেন্ডারে বিশেষ বিশেষ দিনগুলো বেছে নিয়ে পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছেন কিম। ঠিক যেমন, গত ৯ সেপ্টেম্বর সে দেশের প্রতিষ্ঠা দিবসে চালানো হয় বৃহত্তম পারমাণবিক বোমার পরীক্ষা। আর এখানেই ভয়ে কাঁটা হয়ে রয়েছে জাপান। কারণ, সে দেশে যখন নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হবে, উত্তর কোরিয়াতে সেই ১০ অক্টোবর কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠা দিবস। ট্র্যাডিশন বজায় রেখে সেদিন ও পিয়ং ইয়ং ভয়ানক কিছু করলে জাপানে নির্বাচন প্রক্রিয়া বন্ধ করে দিতে হতে পারে।

ইসুনরি অনোদেরা বলছেন, ‘আমরা জানি ১০ অক্টোবর দিনটি উত্তর কোরিয়ার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমরা ওই দিনের জন্য বিশেষভাবে সতর্ক থাকছি। আমরা হাই অ্যালার্টে রয়েছি।’ জাপান প্রতিরক্ষামন্ত্রী মতো আশঙ্কায় ভুগছেন দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা চাং ইউ অং। বৃহস্পতিবার তিনি প্রেসিডেন্ট মুনের সঙ্গে জরুরি বৈঠক সেরেছেন। একই সঙ্গে, পিয়ং ইয়ংয়ের শক্তিশালী হাইড্রোজেন বোমা পরীক্ষার জেরে পরমাণু যুদ্ধের আশঙ্কা আর ও ঘনীভূত হচ্ছে। কোরীয় উপদ্বীপে এই মুহূতে উত্তেজনা আরও বেড়েছে। এ ক্ষেত্রে উত্তর কোরিয়া যাইদাবিকরুকনাকেন, তারা যে পরমাণু অস্ত্রের গবেষণায় দ্রুতগতিতে এগোচ্ছে, সেই বিষয়ে একমত আন্তর্জাতিক মহল। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এবার আমেরিকা পালটা হামলা চালালে, কিমের সমর্থনে এগিয়ে আসতে পারে রাশিয়া ও চিন। ফলে শুরু হতে পারে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ