ঢাকা, মঙ্গলবার 3 October 2017, ১৮ আশ্বিন ১৪২8, ১২ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভারত-পাকিস্তান গোলাগুলীতে ৩ কাশ্মিরী নিহত

১ অক্টোবর, এনডিটিভি : ভারত ও পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর দুপক্ষের গোলাগুলীতে অন্তত তিন কাশ্মিরী নিহত ও আরো ১২ জন আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার সকালে ভারতের কাশ্মির রাজ্যের পুঞ্চ জেলায় পাকিস্তানী সেনাদের গোলাবর্ষণে ১০ বছরের এক বালক ও ১৫ বছরের এক কিশোরী নিহত হয়েছেন এবং আরো সাতজন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।
নিহত বালকের নাম ইসরার আহমেদ এবং কিশোরীর নাম জেসমিন আক্তার বলে জানিয়েছে ভারতীয় বাহিনী। এর দুজনেই পুঞ্চের দিগওয়ার এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।
আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অপরদিকে ওই সকালেই আজাদ জম্মু ও কাশ্মিরের (একেজে) হাভেলি জেলায় ভারতীয় সেনাদের গোলাবর্ষণে এক বৃদ্ধ নিহত ও আরো পাঁচজন আহত হয়েছেন বলে কর্মকর্তাদের বরাতে জানিয়েছে ডন ডটকম।
আহতদের মধ্যে এক নারী ও তার ছেলে রয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে পাওয়া খবরে জানা গেছে বলে ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৬টায় নিয়ন্ত্রণ রেখার অপরপাশ থেকে পাকিস্তানী বাহিনী ‘কোনো উস্কানি ছাড়াই ব্যাপক গোলাবর্ষণ’ শুরু করে বলে অভিযোগ ভারতীয় বাহিনীর। ভারত পাকিস্তানী গোলার জবাব ‘শক্তভাবে এবং কার্যকরভাবে’ দিয়েছে বলে দাবি করেছেন এক ভারতীয় সামরিক কর্মকর্তা।
অপরদিকে হাভেলি জেলার ডেপুটি কমিশনার চৌধুরি কাশিফ হুসেইন টেলিফোনে ডনকে জানিয়েছেন, “ভারতীয় সেনারা ভোর প্রায় ৬টা থেকে নেজাপির ও দিগওয়ার সেক্টরে ভারী ও হালাকা অস্ত্র ব্যবহার করে গোলাবর্ষণ করতে শুরু করে।”
থেমে থেমে গোলাবর্ষণ চললেও তা ‘তীব্র’ ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।
এতে দিগওয়ার গ্রামের ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ মুহম্মদ দীন নিহত ও তার ২৫ বছরের ছেলে মুহাম্মদ জামিল আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন হুসেইন। একই গ্রামের তাসনীম বিবি (৩৪) ও তার ১২ বছর বয়সী ছেলে আকিব এবং মুহম্মদ জাভেদও (৩৫) আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি নেজাপির সেক্টরের ওয়ালি মোহাম্মদ নামের অপর একজন আহত হয়েছেন।
আহতদের নিকটবর্তী সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
দুপক্ষের এই পাল্টাপাল্টি গোলাবর্ষণে কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখার দুপাশের গ্রামগুলোতে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানা গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ