ঢাকা, মঙ্গলবার 3 October 2017, ১৮ আশ্বিন ১৪২8, ১২ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মানিকগঞ্জে স্বর্ণালংকার নগদ টাকা মাইক্রোবাসসহ পাঁচ ডাকাত আটক

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা : মানিকগঞ্জের সিংগাইর থেকে ১৬৮ ভরি স্বর্ণ, নগদ ৫ লাখ টাকা, একটি মাইক্রোবাস, ৪টি ওয়াকিটকিসহ পাঁচ ডাকাত সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।
গতকাল সোমবার দুপুরে মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মাহ্ফুজুর রহমান বিপিএম জানান, গত  রোববার সন্ধ্যার দিকে সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রাম বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী মনির হোসেনের ম্যানেজার কমল মোটরসাইকেলযোগে একটি ব্যাগে করে ১৬৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৫ লাখ ৪ হাজার টাকা নিয়ে দোকানের মালিকের বাড়ি যাচ্ছিলেন। কিন্তু পথে চারিগ্রাম পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড মোড়ে পৌঁছালে আগে থেকে অবস্থান করা সাদা রঙের (ঢাকামেট্রো-চ-৫১-৪৬৪১) একটি মাইক্রোবাস নিয়ে ৭/৮ জন ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে তার মোটরসাইকেল গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে মারধর করে টাকা ও স্বর্ণের ব্যাগটি নিয়ে। এ সময় এক ডাকাত সদস্য মাইক্রোবাসে উঠতে না পারায় জনতা তাকে ধরে ফেলে। পরে তাকে ধাওয়া করে নবাবগঞ্জের বালুখন্ড এলাকা থেকে পুলিশ স্থানীয়দের সহায়তায় মাইক্রোবাসসহ আরও তিন ডাকাতকে ধরে ফেলে। এদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সোমবার নবাবগঞ্জের বালুখন্ড থেকে আলামিন নামের আরেকজনকে আটক করে। তার কাছ থেকে ছিনতাইকৃত নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা ও চারটি ওয়াকিটকি উদ্ধার করা হয়।
আটককৃতরা হলেন শরিয়তপুর জেলার নড়িয়ার মূলফদগঞ্জ গ্রামের তোফাজ্জল হোসেন শান্তুর ছেলে সাজ্জাদ হোসেন স¤্রাট (২৭), কুড়িগ্রাম জেলার বুড়িঙ্গামারীর ময়দাশ গ্রামের মৃত তৈজদ্দিনের ছেলে  হামিদুল ইসলাম (৩৬), ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার চর-তিথির গ্রামের কালু ওরফে ইদ্রিসের ছেলে সুমন (৩০), ঢাকার  ২১৮/৫ পশ্চিম আগারগাঁও এর আব্দুর রব সুলতানের ছেলে রহিম সুলতান ও হাজারীবাগের চর-ওয়াশপুরের আফসার উদ্দিনের ছেলে আলামিন (২৬)। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ