ঢাকা, সোমবার 9 October 2017, ২৪ আশ্বিন ১৪২8, ১৮ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

উ. কোরিয়াকে শায়েস্তা করার ‘রাস্তা একটাই’ -ট্রাম্প

৮ অক্টোবর, বিবিসি : উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে সৃষ্ট বিরোধ কূটনৈতিক উপায়ে নিষ্পত্তির সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এক টুইটার পোস্টে তিনি আবারও পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়েছেন।
টুইটার পোস্টে ট্রাম্প লিখেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টরা এবং তাদের প্রশাসন গত ২৫ বছর ধরে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে কখনও কখনও সমঝোতা হয়েছে ব্যয় হয়েছে প্রচুর অর্থ তবে সমঝোতা স্বাক্ষরের কলমে কালি শুকানোর আগেই পিয়ংইয়ং সেগুলো লঙ্ঘন করেছে মার্কিন আলোচকদের বোকা বানিয়েছে দুঃখের সঙ্গে তাই বলতেই হচ্ছে, ‘রাস্তা একটাই’। ডোনাল্ড ট্রাম্প তার এ বক্তব্যের মাধ্যমে আবারও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা নেওয়ার পরোক্ষ ইঙ্গিত দিলেন।চলতি মাসে হাইড্রোজেন বোমা পরীক্ষা করে এক প্রকার গোটা বিশ্বকে নাডেিয় দেন উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং-উন। জাতিসংঘসহ বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোকে পরোয়া না করে পর পর দুইবার জাপানের ওপর দিয়ে শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে তারা। এরপরই মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জাতিসংঘে দেয়া প্রথম ভাষণে কিমকে ‘শেষ হুঁশিয়ারি’ দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর পর পরই উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি অং-হো হুমকি দেন, ভবিষ্যতে প্রশান্ত মহাসাগরে আরও শক্তিশালী হাইড্রোজেন বোমা পরীক্ষা করা হবে। গত ২৩ সেপ্টেম্বর মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম জানায়, উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলের ‘সবচেয়ে কাছ’ দিয়ে মার্কিন বোমারুউড়ে গেছে। আর এইদিনই জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে রি অং হো, বলেন ট্রাম্পের ‘যুদ্ধবাজি মন্তব্য অব্যাহত থাকলে যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ড উত্তর কোরিয়ার অনিবার্য লক্ষ্যে পরিণত হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ