ঢাকা, সোমবার 9 October 2017, ২৪ আশ্বিন ১৪২8, ১৮ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ফেনীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ শতাংশ কৃষক সরকারী সাহায্য পাচ্ছেন

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীতে এবারের বন্যায় প্রায় সাড়ে ৯ হাজার কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হলেও সরকারিভাবে ১৩শতাংশ কৃষককে সহযোগিতা করা হচ্ছে। রোপা আমন, আমন বীজতলা ও শরৎকালীন সবজির ক্ষতি হলেও ১ হাজার ২শ ৪৫জনকে শুধুমাত্র রবিশস্যের বীজ দেয়া হচ্ছে। সহযোগিতা না পাওয়া অন্য কৃষকরা বিপাকে পড়েছেন।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, এবারের বন্যায় জেলার ৬ উপজেলায় রোপা আমন, আমনের বীজতলা ও শরৎকালীন সবজির ব্যাপক ক্ষতির শিকার হয়েছেন ৯ হাজার ৩শ ৭২ জন কৃষক। এর মধ্যে আমনের বীজতলা ৮ হাজার ৮শ ৪৫, রোপা আমন ১শ ২৯ ও শরৎকালীন সবজির ৩শ ৯৮ জন কৃষকের ৭ কোটি ১৫ লাখ ৮৩ হাজার ৫শ টাকা ক্ষতি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে ফুলগাজী উপজেলায়। এখানে আমনের বীজতলায় ৫ হাজার ৭০, রোপা আমন ৫৪ ও শরৎকালীন সবজি চাষে ২৫ জন কৃষক ক্ষতি হয়েছেন। এছাড়া পরশুরাম উপজেলায় আমনের বীজতলায় ১ হাজার ৪শ ৩০, রোপা আমন ৭৫ ও শরৎকালীন সবজি চাষে ৭০ জন কৃষক, ছাগলনাইয়া উপজেলায় আমনের বীজতলায় ৩ হাজার ৬০ ও শরৎকালীন সবজি চাষে ১শ ৮ জন কৃষক, সদর উপজেলায় আমনের বীজতলায় ৪শ ২০ ও শরৎকালীন সবজিতে ১শ ৮ জন কৃষক, দাগনভূঞা উপজেলায় আমনের বীজতলায় ১ হাজার ৩শ ২৫ ও শরৎকালীন সবজিতে ৬০ জন কৃষক এবং সোনাগাজী উপজেলায় আমনের বীজতলায় ২শ ৪০ জন কৃষক ক্ষতির শিকার হয়েছেন।
সূত্র আরো জানায়, সরকারিভাবে সহযোগিতার জন্য তালিকা করা কৃষকদের রবিশস্যের বীজ দিয়ে সহযোগিতা করা হবে। এদের মধ্যে ৯শ জনকে সরিষা, ৩শ জনকে ফেলন ও ৪৫ জনকে বিটি বেগুন দেয়া হবে। প্রতিজন কৃষককে ১ বিঘা চাষের জন্য ১ কেজি সরিষা বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি, ৭ কেজি ফেলন বীজ, ১০ কেজি ডিএপি, এমওপি ৫ কেজি, ২০ গ্রাম বিটি বেগুনের বীজ, ডিএপি ১৫ কেজি ও এমওপি ১৫ কেজি করে বরাদ্ধ হয়েছে। চলতি মাসের মধ্যে উল্লেখিত প্রণোদনা কৃষকদের মাঝে পৌঁছে দেয়া হতে পারে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. মোহাম্মদ খালেদ কামাল বলেন, এবারের বন্যায় সারাদেশের মত ফেনীতে ব্যাপক ক্ষতি হলেও এখানকার কৃষকরা মনোবল না ভেঙ্গে ক্ষতি কাটিয়ে উঠেছেন। কৃষি পুনর্বাসন হিসেবে সরকারিভাবে ১ হাজার ২শ ৪৫ কৃষককে সহযোগিতা করা হচ্ছে। বরাদ্দকৃত রবিশস্য ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে উপজেলা পর্যায়ে প্রেরণ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ