ঢাকা, মঙ্গলবার 10 October 2017, ২৫ আশ্বিন ১৪২8, ১৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কালাইয়ে পুলিশের নির্যাতনে এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগ

কালাই (জয়পুরহাট) সংবাদদাতা : জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার হারুঞ্জা গ্রামে আসামী ধরতে গিয়ে আসামীর চাচা সাইদুর রহমান (৩৮) পুলিশী নির্যাতনে মারা গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে। নিহত সাইদুর রহমান হারুঞ্জা গ্রামের কাজেম আলীর ছেলে।
পুলিশ সুপার রশীদুল হাসান জানান, গতকাল সোমবার ভোর রাতে হারুঞ্জা গ্রামে শাপলা (৩২) নামের এক আসামীকে পুলিশ ধরতে গেলে আসামীর চাচা সাইদুর রহমান পুলিশের সাথে তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে এবং পুলিশের উপর চড়াও হয়। এসময় পুলিশ সাইদুরকে মারধর করলে সে মারাত্মক আহত হয়। পরে তাকে আহত অবস্থায় কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হলে ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী হাসপাতাল চত্বর ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এতে পুলিশ সদস্যসহ ৫ জন আহত হয়। এ ঘটনায় কালাই থানার চার পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সহকারী পুলিশ সুপার সাজ্জাদ হোসেন। নিহত সাইদুর রহমানের পরিবারের দাবি শাপলাকে গ্রেফতার অভিযান চলাকালে তার স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজনকে পুলিশ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করলে সাইদুর রহমান বাধা দেয় সেই মুহূর্তে নেমে আসে সাইদুরের উপর অমানবিক নির্যাতন। নির্যাতনেই তার মৃত্যু হয়। নিহত ছাইদুরের লাশ জয়পুরহাটে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা  গেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোনো মামলার খবর পাওয়া যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ