ঢাকা, বুধবার 11 October 2017, ২৬ আশ্বিন ১৪২8, ২০ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বয়োজ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার শ্রমিক সমাজ মেনে নিবে না -শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন

 

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মকবুল আহমাদ, নায়েবে আমীর অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানসহ বয়োজ্যেষ্ঠ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ খান। 

গতকাল মঙ্গলবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, ইসলামী আন্দোলনের বয়োজ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার শ্রমিক সমাজ মেনে নিবে না। বিবৃতিতে অধ্যাপক হারুন বলেন, পুলিশ জামায়াত ইসলামী কেন্দ্রীয় বয়োজ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। সরকারের দমন, পীড়ন, জুলুম, নির্যাতন, নিপীড়ন থেকে বাংলাদেশের কোন মানুষ আজ নিরাপদ নয়। সরকার পরিকল্পিতভাবে গণহত্যা, গণনির্যাতন, গণগ্রেফতার, গণসন্ত্রাস করে দেশকে এক ভয়াবহ নৈরজ্যের দিকে ঠেলে দিয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, এ সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। আওয়ামী সরকারের হাতে দেশের মানুষের জান-মালের কোন নিরাপত্তা নেই। সরকার গোটা দেশকেই বৃহৎ কারাগারে পরিণত করেছে। সরকার রাজনৈতিক অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার জন্য গণহারে গ্রেফতার চালাচ্ছে। এই গ্রেফতারের অংশ হিসেবেই জামায়াত ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, জনগণ আজ বুঝে গেছে, সরকার দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করার অসৎ উদ্দেশ্যেই অব্যাহতভাবে জামায়াতের নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার করছে। জাতির ঘাড়ে স্বৈরশাসন চাপিয়ে দিয়ে সরকার দেশের জনগণের উপর জুলুম-নির্যাতন চালাচ্ছে।

তিনি বলেন, সরকার ভেবেছে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে চলমান গণআন্দোলনকে স্তব্ধ করে দিবে। শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের লাখ লাখ শ্রমিক সরকারের সকল জুলুম-নিপীড়ন, অন্যায়, অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য প্রস্তুত আছে। সরকারের একদলীয় ফ্যাসিবাদী স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান এবং অবিলম্বে আমীরে জামায়াতসহ গ্রেফতারকৃত সকল নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ