ঢাকা, বুধবার 11 October 2017, ২৬ আশ্বিন ১৪২8, ২০ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

লালপুরে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়ে ৮ গ্রামে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ॥ আহত ২০

লালপুর (নাটোর) সংবাদদাতা : আকস্মিকভাবে ঘূর্ণিঝড়ে নাটোরের লালপুর উপজেলার ৮টি গ্রামে প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি, গাছপালা, ফসলাদি ও বৈদ্যুতিক সংযোগের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার  বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

সরেজমিন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মোমিনপুর-বাকনাই এলাকায় বহমান পদ্মা নদীতে আকস্মিকভাবে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়টি মোমিনপুর-বাকনাই চর এলাকায় আঘাত হানে। মুহূর্তের মধ্যে চর এলাকা ছাড়াও মোহরকয়া, মোমিনপুর, বাকনাই, মঞ্জিলপুকুর, ঢুষপাড়া, রঘুনাথপুর, হাশিমপুর ও মোরদহ গ্রামে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মধ্য দিয়ে শেষ হয়। এতে প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি ও বিপুল সংখ্যক গাছপালা ভেঙ্গে যায়। পাশাপাশি আবাদী ফসল নষ্ট ও বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে ক্ষতির মুখে এ এলাকার জনসাধারণ। এছাড়া এ ঘটনায় গুরুতর আহত ৫ জন লালপুর থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে এবং বিচ্ছিন্নভাবে আহত প্রায় ১০ জনকে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। 

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ এমপি, লালপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ পাপ্পু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু তাহির, লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারণ সম্পাদক ইসাহাক আলী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ। ইতিমধ্যে স্থানীয় সাংসদ ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ২ শতাধিক পরিবারের মাঝে খাবার চিড়া ও চিনি বিতরন করেছেন। এছাড়া আজ বুধবার সকালে নাটোর জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন উপজেলার মোমিনপুর মাজার শরীফ মাদরাসা মাঠে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করবেন বলে জানা গেছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু তাহির বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপন করছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য প্রয়োজনীয় টিন ও ত্রাণসামগ্রী সহায়তা দেয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ