ঢাকা,বৃহস্পতিবার 19 October 2017, ৪ কার্তিক ১৪২8, ২৮ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

জামায়াতের হরতালে বিএনপির সমর্থন

ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে পালিত হরতালে সমর্থন দেয় বিএনপি। আজ বৃহস্পতিবার সকালে এক জরুরি সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সংবাদ কর্মীদের তার দলের এই অবস্থানের কথা জানান। এছাড়া আগামি ১৫ ই অক্টোবর রোববার বিএনপির প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশনের সংলাপে যাচ্ছেন বলেও জানান বিএনপির মুখপাত্র। 

রিজভী বলেন, জামায়াতে ইসলামীর নেতাদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করে যে রিমান্ডে নেওয়া হল, প্রতিবাদে আমি দলের পক্ষ থেকে জানাতে চাই, জামায়াতে ইসলামীর হরতালকে সমর্থন জানাচ্ছে বিএনপি।

প্রসঙ্গত, জামায়াতে ইসলামীর আমির মকবুল আহমাদ, নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার এবং সেক্রেটারি জেনারেল শফিকুর রহমানসহ আটজনকে গত সোমবার গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার ৫ দিনের রিমান্ডে পাঠানো হয়।

 

ওই হরতালে সমর্থন দিয়ে বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে রিজভী বলেন, আমি গতকাল বুধবার বলেছিলাম যে আমরা সমর্থন জানাব কি জানাবো না- তার কোনো নির্দেশনা নেই। এখন আমার কাছে নির্দেশনা আছে যে দলের পক্ষ থেকে জামায়াতের হরতালকে পূর্ণ সমর্থন জানানো হচ্ছে।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট জামায়াতের এ কর্মসূচিতে সমর্থন দিচ্ছে কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেটা ২০ দলীয় জোটের ব্যাপার। বিএনপি জামায়াতের হরতালকে সমর্থন দিচ্ছে।

রিজভী বলেন, বিরোধী রাজনৈতিক শক্তির কোনো কর্মসূচি যাতে না হয়, সেজন্য ভয় দেখাতে জামায়াত নেতাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওই মামলাকে পরিকল্পিত আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, উত্তরার বাসা থেকে হঠাৎ গ্রেফতার করা হল, অথচ মামলা দেওয়া হয়েছে কদমতলী থানায়। এ থেকে বোঝা যায়, এটা পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে। উদ্দেশ্য একটাই, বিরোধী রাজনৈতিক দল ও ২০ দলীয় জোট যাতে কোনো কর্মসূচি পালন করতে না করে।

সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার উপস্থিত ছিলেন।

 ১৫ অক্টোবর ইসির সংলাপে যাবে বিএনপি :এদিকে আগামী ১৫ অক্টোবর নির্বাচন কমিশনের সংলাপে বিএনপি যোগ দেবে বিএনপি। একথা জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে প্রতিনিধি দল আগামী ১৫ অক্টোবর নির্বাচন কমিশনে সংলাপে যাবেন। সংলাপের আলোচনা বিষয়বস্তু খসড়া তৈরি হচ্ছে। এই মুহূর্তে এ বিষয়ে কিছু জানাবো না। শুধু এটুকু জানাচ্ছি, আমাদের প্রতিনিধিদল ১৫ তারিখ নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছেন। 

নির্বাচন কমিশনের সংলাপে বিএনপি কী উপস্থাপন করবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে প্রস্তাবনা ও চলমান বিষয়গুলো সংলাপের আলোচনায় থাকবে। 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দলে নেতৃত্ব দেবেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যবৃন্দ এই দলের প্রতিনিধি হিসেবে থাকবেন। 

প্রসঙ্গত, একাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক দলসহ অংশীদারদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশন সংলাপ শুরু করে গত ৩১ জুলাই। প্রথমে সংলাপ করে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে। এরপর গত ২৪ আগস্ট থেকে শুরু হয় রাজনৈতিক দলের সাথে সংলাপ। ১৮ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সাথে সংলাপের মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক দলের সংলাপ শেষ হবে। এরপর নারী সংগঠন, পর্যবেক্ষণ সংস্থা ও নির্বাচন বিশেষজ্ঞদের সাথে আলোচনার মধ্য দিয়ে সংলাপ প্রতিক্রিয়া শেষ করবে নির্বাচন কমিশন। 

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ