ঢাকা, শনিবার 14 October 2017, ২৯ আশ্বিন ১৪২8, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভারতের কাছেও ৭ গোলেই হারলো স্বাগতিক বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার : এশিয়া কাপ হকি টুর্নামেন্টে সাত গোলে হারের বৃত্ত থেকে বের হতে পারছেনা স্বাগতিক বাংলাদেশ। পাকিস্তানের পর এবার দুবারের চ্যাম্পিয়ন ভারতের কাছে একই ব্যবধানে হারলো মাহবুব হারুনের শিষ্যরা। গতকাল শুক্রবার মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত নিজেদের দ্বিতীয় খেলায় ভারত ৭-০ গোলে স্বাগতিকদের হারিয়েছে। টানা দ্বিতীয় জয়ে গ্রুপের শির্ষস্থান দখলের লড়াইয়ে আরো একধাপ এগিয়ে গেল ভারত। আন্তর্জাতিক হকিতে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের লড়াইটা সব সময়েই হয়েছে অসম। এটা র‌্যাংকিয়েই স্পষ্ট ভারত ৬ আর বাংলাদেশের অবস্থান ৩৪। দুই দেশের হকির ঐতিহ্য ও শক্তি বিবেচনায় ভারতই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ফেভারিট। তবে দীর্ঘদিন পর ঘরের মাঠে এশিয়া কাপ হচ্ছে বলে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের নিয়ে স্টেডিয়ামে উপস্থিত হাজার সাতেক দর্শক একটু আশায় বুক বেঁধেছিলেন। সে আশা ভারতকে হারানো নয়, মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তোলার। কিন্তু আশাভঙ্গ হয়েছে স্বাগতিক দর্শকদের। দর্শক প্রত্যাশা মেটাতে পারেনি জিমিরা। লড়াইটা অসমই রয়ে গেল। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৭-০ গেলের হার দিয়ে শুরু করা দলটি এবার একই ব্যবধানে ভারতের কাছে হারলো।
ম্যাচের শুরু থেকেই গোলের চেষ্টায় থাকা সাবেক চ্যাম্পিয়নরা প্রথমার্ধে ৫-০ গোলে এগিয়ে যায়। ভারত গোলগুলো করেছে ৭, ১০, ১৩, ২০, ২৮, ৪৬ ও ৪৭ মিনিটে। প্রথম চারটি ফিল্ড গোল, পঞ্চমটি পেনাল্টি স্ট্রোক এবং শেষ দুটি পেনাল্টি কর্নার থেকে। বিজয়ী দলের পক্ষে গোল করেছেন হারমানপ্রিৎ সিং দুটি এবং একটি করে গুরজান্ত সিং, আকাশদ্বীপ সিং, ললিত উপধায়, অমিত রোহিদাস এবং রমনদ্বীপ সিং। গত ম্যাচের মত এ ম্যাচেও জিমি-মিমোরা কোনো পেনাল্টি কর্নার আদায় করতে পারেনি। এমনকি ভারতের বক্সে ঢুকে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের পায়ে বল লাগাতেও পারেননি বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।
টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে ভারত ৫-১ গোলে জাপানকে হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে। একই গ্রুপে পাকিস্তান থাকায় কে গ্রুপ সেরা হবে তা নিয়ে অনেক অঙ্ক কষেছেন হকি বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু আগের ম্যাচে পাকিস্তান ২-২ গোলে জাপানের সঙ্গে ড্র করায় ভারতের জন্য সমীকরণটা সহজ হয়ে গেছে। ভারত দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে হারানোয় এখন গ্রুপের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে এক পয়েন্ট পেলেই হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ