ঢাকা, শনিবার 14 October 2017, ২৯ আশ্বিন ১৪২8, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পাকিস্তানের সাথে পয়েন্ট ভাগ করলো জাপান

স্পোর্টস রিপোর্টার : এশিয়া কাপ হকির চলমান আসরে পাকিস্তানকে রুখে দিয়ে গ্রুপ লড়াই জমিয়ে তুললো জাপান। গত ম্যাচে স্বাগতিকদের সাত গোলে হারানো পাকিস্তানকে দ্বিতীয় ম্যাচেই ড্র তে নামিয়ে আনলো জাপান। গতকাল শুক্রবার মওলানা ভাসানি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচ তিনবারের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তানের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে জাপান। টুর্নামেন্টের শুরুটা জাপানের ভাল হয়নি। গত ম্যাচে ভারতের কাছে ৫-১ গোলে হেরে যাওয়া জাপান দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ালো। বলতে গেলে রীতিমত চমক। গত ম্যাচের তুলনায় এদিন জাপানের খেলায় ছিলো পরিকল্পনার ছাপ। খেলার ধারা অনুযায়ি জাপান জয় নিয়েই টার্ফ ছাড়তে পারতো। কপাল ভালো পাকিস্তান ড্র নিয়ে সম্মান বাঁচিয়েছে। গত ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে যেভাবে জ্বলে উঠেছিলো তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা। এদিন তাদের খেলায় সেই গতি চোখে পড়েনি। হয়তো জাপানকে দুর্বল ভেবেই খেলতে নেমছিলো। টুর্নামেন্টে বড় কোন টার্গেট না নিয়ে এলেও জাপানের লক্ষ্য সম্মানজনক অবস্থান। টুর্নামেন্টের শুরুতেই এমনটি জানিয়েছিলেন জাপানের কোচ। সেই লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নেমে জাপান ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে গিয়েছিলো। যদিও ম্যাচে প্রথম গোলটি পায় পাকিস্তান। ১৬ মিনিটে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে এগিয়ে যায় পাকিস্তান। মোহাম্মদ রিজওয়ানের পুশ থেকে বল পেয়ে হিট নিয়েছিলেন অধিনায়ক ইরফান মোহাম্মদ। স্টিক লাগিয়ে সে বলের গতি পরিবর্তন করে জালে পাঠান মোহাম্মদ কাদির। পিছিয়ে পড়া জাপান গোলের জন্য মরিয়া হয়ে চড়াওভাবে খেলতে থাকে এবং ২২ মিনিটে সাফল্যও আসে তাতে। তানাকা কেনতার দুর্দান্ত গোলে সমতা আনেন জাপান। বিরতির বাঁশির কয়েক সেকেন্ড আগে পাকিস্তানকে হতভম্ব করে এগিয়ে যায় জাপান। গোল করেন ইয়োশিহারা হেইতা।পাকিস্তান ম্যাচে ফেরে একটা সংঘবদ্ধ আক্রমন থেকে ৫০ মিনিটে। আমজাদ আজাজ বল নিয়ে ডান দিক দিয়ে ঢুকে পড়ে জাপানের বক্সে। লাইন থেকে বলটি ঠেলে দেন পোস্টের সামনে দাঁড়ানো মোহাম্মদ ওমর ভাটকে। ওমর ভাটের পুশ ঠেকানোর কোনো সুযোগই পাননি জাপানের গোলরক্ষক। শেষ কয়েকট মিনিট গোলের জন্য মরিয়া হয়ে জাপানের সীমানায় হানা দেয় সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তুজাপানের জমাট রক্ষণভাগ থেকেই তাদের আক্রমণগুলো ফিরে আসে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ