ঢাকা, শনিবার 14 October 2017, ২৯ আশ্বিন ১৪২8, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রূপগঞ্জ থেকে অপহৃত শিশু ৬ দিন পর গাইবান্ধায় উদ্ধার

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা: রূপগঞ্জ থেকে অপহৃত শিশু ছয় দিন পর আবু সিদ্দিককে গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার উল্লাপুর রেল স্টেশন এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে ওই শিশুকে উদ্ধার করে ভুলতা ফাঁড়ি পুলিশ। এর আগে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রূপগঞ্জ উপজেলার নতুন বাজার এলাকা থেকে শিশু আবু সিদ্দিককে অপহরণের পর দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়।
ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শহিদুল আলম জানান, শিমু আক্তার নামে এক নারী রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগে ওই নারী অভিযোগ করেন, তার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে তিন ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে গোলাকান্দাইল নতুন বাজার এলাকার জহিরুল ইসলামের বাড়িতে বসবাস করে আসছেন। বর্তমানে শিমু আক্তার মাইক্রো সুইং ফ্যাক্টরী নামে একটি কারখানায় কাজ করেন। একই বাড়ির ভাড়াটিয়া ভিসা ফকির দীর্ঘ দিন ধরে শিমু আক্তারকে বিয়ের প্রলোভনসহ বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছে। তার প্রস্তাবে রাজী না হলে বড় ধরনের ক্ষতিসহ তার সন্তান আবু সিদ্দিক (৪) কে অপহরণ করে নিয়ে যাবে বলে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ করেন। গত মঙ্গলবার সন্ধায় আবু সিদ্দিককে ভিসা ফকির বিস্কুট কিনে দেওয়ার কথা বলে দোকানে নিয়ে যায়। এরপর থেকেই ভিসা ফকির শিমু আক্তারের ছেলে আবু সিদ্দিককে বাড়িতে নিয়ে দিয়ে যায়। অনেক খুঁজাখুঁজির করেও আবু সিদ্দিককে পাওয়া যায়নি। রাত ১০ টার দিকে ভিসা সিদ্দিক ফোন দিয়ে শিমু আক্তারের কাছে দেড় লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করেন। তার দাবিকৃত মুক্তিপণের টাকা না দিলে আবু সিদ্দিককে মেরে ফেলবে বলে হুমকি ধামকি প্রদান করেন।
তিনি আরো জানান, এরপর পুলিশ অপহরণকারী ভিসা ফকিরের স্ত্রী মালা বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। মালা বেগম পুলিশকে জানিয়েছেন, শিশু আবু সিদ্দিক স্বামী ভিসা ফকিরের কাছে রয়েছে এবং ভালো আছে। শিশুটিকে তার মা শিমু আক্তারের কাছে বুঝিয়ে দিবে বলেও আশ^স্থ্য করেন মালা। এরপর গত বৃহস্পতিবার রাতে ভৈরব রেল ষ্টেশনের দিঘীরপাড় এলাকায় মালার বাড়িতে শিমুসহ পুলিশ সদস্যরা যান। সেখানে গিয়ে দেখেন শিশু আবু সিদ্দিক নেই। এক পর্যায়ে মালার মাধ্যমে ভিসা ফকিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়, তখন ভিসা ফকির জানায় পুলিশ ছাড়া মালা ও শিমু আক্তার আসলে তাদের কাছে শিশু আবু সিদ্দিককে বুঝিয়ে দেয়া হবে। এ জন্য শুক্রবার সকালে মালা ও শিমু আক্তারকে গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার বাধ্যপাড়া এলাকায় গিয়ে দেখেন সেখানেও নেই আবু সিদ্দিক। এরপর দুই দিন বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনার এক পর্যায়ে রোববার দুপুরে পার্শ্ববর্তী সাঘাটা উপজেলার উল্লাপুর রেলস্টেশন এলাকা থেকে অপহৃত আবু সিদ্দিককে উদ্ধার এবং ভিসা ফকিরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত ভিসা ফকির সাঘাটা উপজেলার পাতিলবাড়ির চর এলাকার সাঘাটা এলাকার আব্দুল হামিদ মোল্লার ছেলে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ