ঢাকা, শনিবার 14 October 2017, ২৯ আশ্বিন ১৪২8, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রতিবাদ করায় পিটিয়ে জখম

মাদারীপুর সংবাদদাতা: আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরেও মাদারীপুর সদর উপজেলার মস্তফাপুর ইউনিয়নের চাঁপাতলি গ্রামে অন্যের জায়গায় জোরপূর্বক ঘর উত্তোলণের অভিযোগ উঠেছে একটি প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে। পাকা স্থাপনা করায় বাধাঁ দিলে কুপিয়ে-পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেছে অসহায় একটি পরিবারের সদস্যদের। এই ঘটনায় থানায় মামলা হলেও কেউ গ্রেফতার হয়নি।
ভুক্তোভুগি পরিবার ও মামলার বিবরণে জানা গেছে, সদর উপজেলার মস্তফাপুর ইউনিয়নের চাঁপাতলি গ্রামের গোলাম আলী শিকদারের মায়ের পৈত্রিক সম্পত্তিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার পরেও গত ৩০ সেপ্টেম্বর একই গ্রামের আব্বাস মাতুব্বর, খলিল সরদারসহ বেশ কয়েকজন জোরপূর্বক ঘর উত্তোলণ করে পাকা বিল্ডিংয়ের ছাদ নিমার্ণ শুরু করে। এসময় সম্পত্তির প্রকৃত মালিকরা এগিয়ে আসলে আব্বাস মাতুব্বরসহ তাদের গ্রুপের লোকজন গোলাম আলী শিকদারের মা খাতুন নেছা খাদিজা বেগমসহ ৭ থেকে ১০ জনকে কুপিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। আহতরা হলো গোলাম আলী শিকদারের মামাতো ভাই মান্নান মোল্লা, খালপাড় গ্রামের রশিদ মোল্লার স্ত্রী শাজেদা বেগম, শাজাহান খালাসী, শাহ আলম সরদার, আবুল শরীফ, মাহাবুল মোল্লা। পরে স্থানীয়রা এদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এই ঘটনায় গোলাম আলী শিকদার দাবী হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। তবে এতো দিন পার হলেও কোন আসামী গ্রেফতার হয়নি। এছাড়া একই দিন দেখিয়ে খলিল সর্দার সদর থানায় একটি মিথ্যে মামলা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ