ঢাকা, শনিবার 14 October 2017, ২৯ আশ্বিন ১৪২8, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ গাজীপুরের কালীগঞ্জে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১২) স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে জোর করে তুলে নিয়ে নগ্ন ছবি ধারণ করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে ওই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে কয়েকদফা দলবেঁধে ধর্ষণ করেছে তারা। ওই ছাত্রীর নগ্ন ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে স্থানীয় চার যুবকের নাম উল্লেখ করে কালীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
কালীগঞ্জ থানার এসআই মো. আব্দুল হালিম দায়েরকৃত মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে জানান,  গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের ফুলদী গ্রামের পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী (১২) গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে ঘোষপাড়া এলাকায় পৌছলে সাগর রবি দাসসহ স্থানীয় চার যুবক ওই ছাত্রীকে জোর করে তুলে পার্শ্ববর্তী এক জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে তারা মুখ চেপে ধরে ওই ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে এবং সে দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে। পরে ধারণকৃত নগ্ন (বিবস্ত্র) ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে যুবকরা দলবেঁধে তাকে ধর্ষণ করে। এসময় পুনরায় ছবি ধারণ করা হয়। ধর্ষকরা এ ঘটনা প্রকাশ করা হলে ছাত্রীটিকে প্রাণে মেরে ফেলার এবং ধারণ করা ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে প্রকাশ করার হুমকি দেয়। তাদের হুমকির প্রেক্ষিতে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী বিষয়টি কারো কাছে প্রকাশ করেনি। এ ঘটনার পর গত মঙ্গলবার সাগর রবিদাস ও তার সহযোগীরা পূনঃরায় ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ইতোমধ্যে ধারণ করা ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয় ধর্ষকরা। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় একই গ্রামের রবি দাসের ছেলে সাগর রবি দাস, সাইজুদ্দিনের ছেলে রাজু , কাসেমের ছেলে শ্যামল, মন্টু রবি দাসের ছেলে সঞ্জীবন রবি দাসকে আসামী করা হয়েছে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি মো. আলম চাঁদ জানান, এঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের একাধিক টিম বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। তবে এ পর্যন্ত (শনিবার সন্ধ্যা) কাউকে গ্রেফতার বা আটক করা সম্ভব হয় নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ