ঢাকা, রোববার 15 October 2017, ৩০ আশ্বিন ১৪২8, ২৪ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভূত তাড়ানোর নামে

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা: রামপালে ভোজপাতিয়া ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামের জলিল শেখের কন্যা নাছিমা খাতুন (২৫) নামের এক যুবতী তিন ওঝার দ্বারা নির্মম নির্যাতনের শিকার হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত নাছিমার পরিবার অব্যহত হুমকির মুখে ওই তিন ওঝার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে পারেনি। এলাকায় নির্মম নির্যাতনের শিকার নাছিমা খাতুন ও তার পিতা জলিল শেখের সাথে কথা বলে জানা গেছে, নাছিমার উপর জ্বীন ভূতের আছর পড়েছে এমন ভয়ভীতি দিয়ে তার ভূত ছাড়ানোর জন্য একই গ্রামের কেশব লালের পুত্র সুশান্ত বিশ্বাস ওরফে পাগলা, ডাকরা গ্রামের মোন্নাফ ফকিরের পুত্র তায়েব আলী ফকির ও একই গ্রামের মোস্তফা ফকিরের পুত্র হালিম ফকির গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে তাদের বাড়িতে হাজির হয়। ওই তিন ভন্ড ওঝা ঘরের মেঝের বিভিন্ন স্থানের মাটি খুড়ে বিভিন্ন জিনিসপত্র বের করে। এরপর নগদ ৫ হাজার ১ টাকা, নতুন লুঙ্গি, ২টি বড় মুরগীসহ অন্যান্য মালামাল হাতিয়ে নেয়। পরে ওই যুবতীকে ঘরের চালের আড়ার সাথে হাত বেধে ডালিম গাছের মোটা ডাল দিয়ে বেধড়ক মারপিট করলে ওই যুবতী রক্তাক্ত জখম হয় এবং সাথে সাথে জ্ঞান হারায়। আহত ওই যুবতীর পিতা জলিল জানান, এ ঘটনা কারো কাছে বললে বা অভিযোগ করলে তোদের বড় ধরনের ক্ষতি হবে বলে ভন্ড ওঝারা শাসিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ভোজপাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ নুরুল আমীনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ওরা ভণ্ড, প্রতারক, ওরা নিরীহ মানুষকে হয়রানী করে। ওদের শাস্তি হওয়া উচিত। ঘটনার বিষয় রামপাল থানার ওসি মোঃ লুৎফর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার বিষয় কেউ অভিযোগ করেনি, অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা ও বিষয়টি সম্পর্কে খোজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ