ঢাকা, মঙ্গলবার 17 October 2017, ২ কার্তিক ১৪২8, ২৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাতের ইন্টারনেট অফার  বন্ধে নির্দেশ হাইকোর্টের

 

স্টাফ রিপোর্টার : ব্লু হোয়েলসহ ইন্টারনেটভিত্তিক খেলার গেটওয়ে লিংক ছয় মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে দেশের মোবাইল ফোন অপারেটরদের রাতের বিশেষ ইন্টারনেট অফারও ছয় মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে গতকাল সোমবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী এবং বিচারপতি জে বি এম হাসান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ এই আদেশ দেন। সুপ্রিম কোর্টের তিন আইনজীবী গত রোববার রিট আবেদনটি করেন।

এছাড়া ব্লু হোয়েলসহ এ জাতীয় ইন্টারনেট ভিত্তিক গেমে আসক্তদের চিহ্নিত করতে এবং প্রয়োজনীয় কাউন্সেলিং দিতে অভিজ্ঞদের নিয়ে একটি মনিটরিং সেল গঠন করতে বলেছেন আদালত। তথ্য মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগযোগ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এসব নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মুহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব। সরকার পক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি  জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

ব্ল হোয়েল গেম খেলে রাজধানীর হলিক্রস স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী অপূর্বা বর্ধন স্বর্ণার (১৩) বাবা এডভোকেট সুব্রত বর্ধন, ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাওসার ও ব্যারিস্টার নূর আলম সিদ্দিক এই রিট আবেদন করেন।

আইনজীবী মুহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব বলেন, দেশের সব মোবাইল অপারেটরের রাতের বিশেষ ইন্টারনেট অফার কেন বন্ধের নির্দেশ দেয়া হবে না এবং বিপদজনক এসব মারণখেলা ও সাইবার অপরাধ থেকে জনগণকে সচেতন ও সুরক্ষা দিতে কেন নীতিমালা করার নির্দেশনা দেয়া হবে না রুল জারি করে তা জানতে চেয়েছেন। সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, বিটিআরসি চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্রসচিব, শিক্ষাসচিব, সমাজকল্যাণ সচিব, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব, আইনসচিব, স্বাস্থ্যসচিব, পুলিশ আইজি, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এবং মোবাইল অপারেটরদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আইনজীবী মুহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব শুনানিতে বলেন, যে তিনজন আইনজীবী এই রিট আবেদন করেছেন তাদের একজন মনে করেন, এই গেম  খেলে যাদের মৃত্যু হয়েছে বা আত্মহত্যা করেছে, তাদের মধ্যে যেসব উপসর্গ ছিল, সেসব উপসর্গের সঙ্গে তার মেয়ের মৃত্যুর মিল রয়েছে। তখন আদালত জানতে চায়, সেই আইনজীবী কে।

আদালতে উপস্থিত আইনজীবী সুব্রত বর্ধন এ সময় উঠে দাঁড়ালে বিচারক জানতে চান, তার মেয়ে কবে মারা গেছে, তার বয়স কত ছিল, কোন ক্লাসে পড়ত।

সুব্রত বর্ধন তখন বলেন, তার মেয়ে স্বর্ণ মারা গেছে গত ৫ অক্টোবর। ওর বয়স ছিল ১৪ বছর। হলিক্রস স্কুলে অষ্টম শ্রেণীর ফার্স্ট গার্ল ছিল।

আইনজীবী সুব্রত বর্ধন তার মেয়ের একটি ছবি এ সময় আদালতে উপস্থাপন করেন। এরপর বিচারক বলেন, যার চলে যায়, সেই বোঝে বিচ্ছেদের কি যন্ত্রণা!

ইন্টারনেট ভিত্তিক ব্লু হোয়েল বা ‘ব্লু হোয়েল চ্যালেঞ্জ’ একটি অনলাইন গেম, খেলার শেষ চ্যালেঞ্জ থাকে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করা। এই গেমে  খেলোয়াড়দের সামনে চ্যালেঞ্জ হিসেবে বিভিন্ন কাজ করতে দেওয়া হয়, শুরুতে হালকা কিছু কাজ দেয়া হলেও ধীরে ধীরে ভয়ঙ্কর সব কাজ দেয়া হয়। সব শেষে চূড়ান্ত কাজ হিসেবে খেলোয়াড়কে আত্মহত্যা করতে বলা হয়।

২০১৩ সালে রাশিয়ায় এফ ৫৭ নামে যাত্রা শুরু করে গেমটি। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত ফিলিপ বুদেইকিন নামের এক সাবেক মনোবিদ্যা শিক্ষার্থী এটি তৈরি করেন। ওই গেম খেলে ১৬ কিশোরীর আত্মহত্যার পর ফিলিপ বুদেইকিনকে রাশিয়ায় আটক করা হয়। বাংলাদেশ ও ভারতেও এ গেম খেলে অসংখ্য তরুন-তরুণীকে আত্মহত্যা করতে প্ররোচিত করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ