ঢাকা, মঙ্গলবার 17 October 2017, ২ কার্তিক ১৪২8, ২৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

দুই বিচারপতির মতবিরোধে  বেঞ্চ ভেঙ্গে দিলেন ভারপ্রাপ্ত  প্রধান বিচারপতি

 

স্টাফ রিপোর্টার : হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চে দুই বিচারপতির মতবিরোধে বেঞ্চটি ভেঙ্গে দিয়েছেন ভারপ্রাত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞা। মতবিরোধে জড়ানো দুই বিচারপতিকে পৃথক একক বেঞ্চের দায়িত্ব  দিয়ে এর সুরাহা করেছেন তিনি।

গতকাল সোমবার একটি মামলার শুনানি কেন্দ্র করে বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি এএনএম বশির উল্লাহ সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চে মতবিরোধ দেখা দেয়। সকালে বিএনপি নেতা মীর নাছির উদ্দীনের একটি মামলা বেঞ্চে উত্থাপিত হলে কনিষ্ঠ বিচারপতি এএনএম বশির উল্লাহ মামলাটি শুনতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তিনি এজলাস কক্ষে উপস্থিত সবার সামনে বলে ওঠেন, আমি এ মামলা শুনব না।

কনিষ্ঠ বিচারপতির এমন আচরণে বিরক্ত হন বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী। তিনি কনিষ্ঠ বিচারপতিকে বলেন, সেটা আপনি আগেই আমাকে আস্তে আস্তে বলতে পারতেন। উন্মুক্ত এজলাসে এসব কথা বলতে পারেন না। আদালতের কিছুতো নিয়ম রয়েছে, কিছুটা বিধানও তো রয়েছে। এই বলে জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী এজলাস কক্ষ ত্যাগ করে নিজ কামরায় ফিরে যান। এরপরে বেঞ্চের কনিষ্ঠ বিচারপতিও এজলাস ত্যাগ করেন।

পরে বিষয়টি ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নিকট পৌঁছালে তিনি ডিভিশন বেঞ্চ ভেঙ্গে দিয়ে পৃথক একক বেঞ্চ গঠন করে দেন। এরমধ্যে জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরীকে দেওয়ানি মামলা এবং কনিষ্ঠ বিচারপতি এএনএম বশির উল্লাহকে ফৌজদারি মামলার বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়।

কনিষ্ঠ বিচারপতি এএনএম বশিরউল্লাহ ২০১০ সালের ১৮ এপ্রিল হাইকোর্টের অতিরিক্ত বিচারপতির শপথ নেন। পরে ২০১২ সালের ১৫ এপ্রিল তিনি স্থায়ী বিচারপতি হন হাইকোর্টে। এর আগে তিনি ঢাকার জেলা জজ ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ