ঢাকা, শনিবার 18 November 2017, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২8, ২৮ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী শত শত রোহিঙ্গাকে হত্যা করেছে: অ্যামনেস্টি

জীবন ও সম্ভ্রম বাঁচাতে বাংলাদেশে আসছে রোহিঙ্গা মুসলমানরা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, রোহিঙ্গা মুসলমানদের দেশছাড়া করার অংশ হিসেবে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রাখাইন রাজ্যে শত শত শিশু, নারী ও পুরুষকে হত্যা করেছে। এসব হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করতে এবং মিয়ানমারের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

আজ (বুধবার) প্রকাশিত এক নতুন প্রতিবেদনে সংস্থাটি জানিয়েছে, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনী মানবতার বিরুদ্ধে যে পরিকল্পিতভাবে অপরাধ করছে, তার শক্ত প্রমাণ রয়েছে।

২৫ আগস্ট রাখাইন রাজ্যে সামরিক বাহিনীর নিধনযজ্ঞ শুরু হওয়ার পর বাঁচতে পাঁচ লাখ ৮০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন। তারা কক্সবাজের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন। তাদের মধ্য থেকে ১৫০ জনের সাক্ষাৎকার, স্যাটেলাইনের তথ্য, ছবি ও ভিডিওর ওপর ভিত্তি করে এ প্রতিবেদন তৈরি করেছে অ্যামনেস্টি।

গত দুই দিনেই বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ৪৫ হাজার রোহিঙ্গা 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাখাইন রাজ্যে মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর ব্যাপকভাবে হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন করছে দেশটির সেনাবাহিনী। শুধু তাই নয়, সেখানকার বাসিন্দাদের জোর করে বিতাড়িত করা হচ্ছে। হাজার হাজার রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশু মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর হামলার শিকার হয়েছে।

রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎকার নিয়ে অ্যামনেস্টি জানায়, মিয়ানমারের সীমান্ত পুলিশের ৩৩ লাইট ইনফ্যান্ট্রিও গ্রামগুলোতে হামলার সঙ্গে জড়িত ছিল। জড়িত ছিল বৌদ্ধদের উগ্রবাদী চক্রও।

অ্যামনেস্টির গবেষক ম্যাথিউ ওয়েলস

অ্যামনেস্টির গবেষক ম্যাথিউ ওয়েলস বেশ কিছুদিন বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে অবস্থান করেছেন। তিনি বলেন, তারা কয়েকমাসের মধ্যে আরেকটি প্রতিবেদন প্রকাশ করবে যেখানে জড়িতদের ব্যাপারে নির্দিষ্ট করে তথ্য উল্লেখ থাকবে।

তিনি বলেন, গুলিবিদ্ধ রোহিঙ্গাদের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে, পালিয়ে যাওয়ার সময়ই তাদের পেছন থেকে গুলি করা হয়। ওয়েলস জানান, স্যাটেলাইট ছবি ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে তারা জানতে পেরেছেন রোহিঙ্গাদের বাড়ি, মসজিদসহ পুরো গ্রামই জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আশ্রয়ের খোঁজে রোহিঙ্গারা

এর আগে গতকাল (মঙ্গলবার) মার্কিন মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচও স্যাটেলাইট ছবি বিশ্লেষণ করে জানিয়েছে যে, গত ২৫ আগস্ট থেকে ২৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ২৮৮টি গ্রামের হাজার হাজার বাড়ি আংশিক বা পুরোপুরি ভষ্মীভূত হয়েছে।

এইচআরডব্লিউ’র এশিয়া বিভাগের উপ পরিচালক ফিল রবার্টসন বিবৃতিতে বলেন, রাখাইনের সাড়ে পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা মাত্র কয়েক সপ্তাহের মধ্যে কেন পালিয়ে বাংলাদেশে গেছে, ওই স্যাটেলাইট ছবিতেই তা স্পষ্ট।-পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ