ঢাকা, শুক্রবার 20 October 2017, ৫ কার্তিক ১৪২8, ২৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রতারিতরা অভিযোগ করলেও  প্রতিকার নেই

মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা : বেশ কিছু দিন যাবৎ মাধবদীতে নারী পুরুষ প্রতারকের প্রতারণায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে মাধবদীর শান্তিপ্রিয় মানুষ। বিভিন্ন সংস্থায় চাকরি রত বলে ভুয়া পরিচয়পত্র দেখিয়ে চাকরি দেবার নাম করে বিভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্নœ এলাকায় সহজ সরল মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে গাঢাকা দেয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে বহুবার। সম্প্রতি কুমিল্লা চান্দিনার মনির নামের এক ব্যক্তি ঢাকার একটি মানবিক সাহায্য সংস্থার উপ-পরিচালক পরিচয় দিয়ে মাধবদীর কাশিপুর, কোতালিরচর ও নুরালাপুরের বেশ কিছু সাধারণ পরিবারের যুবক যুবতীর কাছ থেকে চাকরি দেয়ার নাম করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে হঠাৎ উধাও হয়ে গেলে প্রতারিতরা ঐ সংস্থায় যোগাযোগ করে জানতে পারে তাদের সংগঠনে মনির নামের কোন লোক নেই বা কখনো ছিলনা। এ ছাড়াও কিছু মহিলা সম্প্রতি মাধবদীর বিভিন্ন এলাকায় ভুয়া নাম পরিচয় বলে প্রতারণা করে চলেছে। গত ১৮ অক্টোবর মাধবদীর নূরালাপুরের জোয়ারিয়া কান্দা গ্রামে রুমা দাস নামের এক মহিলা আনন্দীর শংকর দাসের স্ত্রী ও তার শশুড় লক্ষণ দাস বলে পরিচয় দিয়ে মেয়ের বিয়ের জন্য সাহায্য চাইতে গিয়ে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে বেশ কিছু টাকা উঠিয়ে পাশের গ্রামে গিয়ে নুরালাপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য জালাল মিয়ার নিকট উপরোক্ত ভুয়া পরিচয় দিয়ে সাহায্য চাইলে তার সন্দেহ হয়। পরে তিনি আনন্দী গ্রামে ফোন করে খবর নিয়ে জানতে পারেন প্রতারক রুমা দাস শংকরের স্ত্রী নয় এবং তাদের মেয়ের বিয়ের কথাও সঠিক নয়। এ ঘটনার পর স্থানীয় মহিলা ইউপি সদস্যকে দিয়ে প্রতারক রুমা দাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেড়িয়ে আসে প্রতারণার আসল ঘটনা। সে স্বীকার করে তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে ঐ এলাকার পরিচিত কারো স্ত্রী পরিচয় দিয়ে সে দীর্ঘদিন যাবৎ এক এক এলাকায় বিভিন্ন জেলায় বাড়ি বলে প্রতারণা করে আসছে। পরে মহিলা ইউপি সদস্য প্রতারক রুমা দাসের কাছ থেকে মুচলেখা রেখে ছেড়ে দেয়। শুধু  তাই নয় মাধবদী ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে এরকম অসংখ্য ঘটনা ঘটে চলেছে ছেলের চিকিৎসা, স্বামী পঙ্গু কর্মক্ষম, মেয়ের বিয়ে, বিদেশে ও দেশে লোভনীয় চাকরির অফারের নাম করে অভিনব কায়দায় চলছে প্রতারণা। ভুক্তভোগীরা অনেক সময় আইন প্রয়োগকারী সংস্থায় অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাননি বরং উল্টো হয়রানীর অভিযোগ করেছেন অনেক ভুক্তভোগী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ