ঢাকা, শুক্রবার 20 October 2017, ৫ কার্তিক ১৪২8, ২৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পাকিস্তানের ওপর নজর রাখতে ভারতকে সাহায্যের আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি

১৯ অক্টোবর, ওয়াশিংটন পোস্ট : জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি বলেছেন, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে যে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন সে ক্ষেত্রে পাকিস্তানের ওপর নজরদারির জন্য ভারত যুক্তরাষ্ট্রকে সাহায্য করতে পারে। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দক্ষিণ এশিয়া ও আফগানিস্তানে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবেলার লক্ষ্যে যেসব নতুন কৌশল গ্রহণ করেছেন তার অন্যতম হচ্ছে ভারতের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের কৌশলগত অংশীদারিত্ব জোরদার করা।

নিকি হ্যালি বলেন, আফগানিস্তান ও সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের অগ্রাধিকারমূলক নীতি হচ্ছে, যে সব সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আমাদের প্রতি হুমকিস্বরূপ তাদের নির্মূল করা। এ লক্ষ্যে এ অঞ্চলে রক্ষিত পারমাণবিক অস্ত্র যাতে সন্ত্রাসীদের হাতে না যায় তা প্রতিরোধের জন্য আমরা আমাদের সব ধরনের কূটনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামরিক শক্তি কাজে লাগাব।

মার্কিন দূতের মতে, সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে প্রশাসন থেকে অর্থব্যবস্থা, রাজনীতি থেকে সামরিক ক্ষেত্র সবকিছুর সাহায্য প্রয়োজন৷ সন্ত্রাসবাদ ছাড়া অন্যান্য ক্ষেত্রেও ভারতের সাহায্যের প্রসঙ্গ তুলে ধরেন তিনি৷ আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে ভারতের সাহায্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রয়োজন, কারণ এই দুই দেশের সম্পর্ক ভালো। তিনি ভারতের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক ও নিরাপত্তা অংশীদারিত্বের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

ভারত-মার্কিন মৈত্রী পরিষদ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথার পাশাপাশি নিকি হ্যালি বলেন, এ বছরের শেষ দিকে সামগ্রিক বিষয় নিয়ে কথা বলার জন্য তার ভারত সফরের পরিকল্পনা রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে একসময় যুক্তরাষ্ট্রের সুসম্পর্ক ছিল। কিন্তু মার্কিন নাগরিকদের টার্গেট করছে এমন জঙ্গিদের আশ্রয়দানকারী কোনো রাষ্ট্রের সঙ্গে সখ্য বজায় রাখা চলে না। এই সত্যিটা ভারত ও পাকিস্তান দু’টি দেশকেই বুঝতে হবে।’

নিকি হ্যালির মতে ভারত ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের স্থিতিশীলতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। যুক্তরাষ্ট্র সত্যিই আফগানিস্তানে ভারতের সাহায্য চায়। তারা এ অঞ্চলের আমাদের নির্ভরযোগ্য অংশীদার। তারা শুধু আফগানিস্তানের পুনর্র্নিমাণের জন্য অবকাঠামো এবং অন্যান্য সহযোগিতাই করবে না, সাথে সাথে (তারা) পাকিস্তানের উপর নজর রাখতে আমাদের সাহায্য করতে পারে। তিনি জানান, ইরানের হাতে যাতে কোনোভাবেই পরমাণু অস্ত্র না পৌঁছায় তা নিশ্চিত করতে হবে বলে সম্প্রতি ঘোষণা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। কারণ তাহলে গোটা বিশ্বের পক্ষেই তা ভয়ঙ্কর হবে। নিকি হ্যালি বলেন, ‘ভারতও পরমাণু শক্তিধর দেশ। কিন্তু এই গণতান্ত্রিক দেশ কখনই কাউকেই বিপদের মুখে দাঁড় করাবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ