ঢাকা, সোমবার 23 October 2017, ৮ কার্তিক ১৪২8, ২ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আরো ১ লাখ রোহিঙ্গার দায়িত্ব নেবে তুরস্ক

সংগ্রাম ডেস্ক : মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এক লাখ রোহিঙ্গাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করে আরো এক লাখের দায়িত্ব নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে তুরস্ক।
গতকাল রোববার বিকেলে সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সঙ্গে দেশটির রাষ্ট্রদূত দেওরিম ওজতুর্ক বৈঠক করে নতুন করে এ আশ্বাস দিয়েছেন। শীর্ষনিউজ।
আগেই এক লাখ রোহিঙ্গার বাসস্থানের জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তারা এক লাখ লোকের জন্য ২৪ হাজার ঘর করে দেবে। নতুন করে সাহায্যের জন্য আহ্বান জানিয়েছি। তারা আরো এক লাখ লোকের ঘর করার জন্য চিন্তাভাবনা করছেন।
‘এক হাজার থেকে ১২শ’ একরের জায়গায় তার্কিশ জোনে দুই লাখ লোকের জন্য থাকা-খাওয়া, চিকিৎসা, টিউবয়েল-বিশুদ্ধ পানি, শেডসহ সব দায়-দায়িত্ব তারা নেবে। ৫০ হাজার শেড তৈরি করে দেবে’। মন্ত্রী বলেন, ৩৫ হাজার ল্যাট্রিনের প্রয়োজন থাকলেও লোক বেড়ে যাওয়ায় ৫০ হাজার প্রয়োজন পড়বে। এর মধ্যে ইউনিসেফ ১০ হাজার, সরকার ও অন্যান্য এনজিও মিলে নয় হাজার করছে। তুরস্ক ২০ হাজার টয়লেট করে দেবে বলে আশ্বস্ত করেছে।
রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার বিষয়ে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে কিনা- প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, সব ধরনের চেষ্টা করা হচ্ছে।
‘আজকে মিয়ানমার সরকারের যে নতজানু অবস্থা, চারটিখানি কথা না। বার বার জাতিসংঘ থেকে শুরু করে বিশ্ববাসী, আন্তর্জাতিক চাপ এতো বেশি হয়েছে, মিয়ানমার সরকার নতজানু হয়ে গেছে। দেখতে থাকেন, সহযোগিতা করেন, এক দিনের সমস্যা তো না, সমাধান হয়ে যাবে। সময় লাগবে আমরা পারবো’।
তুরস্ক ৩০ লাখ শরণার্থীর আশ্রয় ও ভরণ-পোষণ দিয়ে যাচ্ছে জানিয়ে তুরস্কের রাষ্টদূত বলেন, আমরা দ্রুত বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ও স্থানীয়দের আরো সহযোগিতা বৃদ্ধি করবো। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের জন্যও তারা কাজ করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ