ঢাকা, সোমবার 23 October 2017, ৮ কার্তিক ১৪২8, ২ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাস্তায় উল্টো পথে গাড়ি চালালে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না -ওবায়দুল কাদের 

স্টাফ রিপোর্টার: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাস্তায় উল্টো পথে গাড়ি চালালে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। গতকাল রবিবার রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে জাতীয় সড়ক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৫ জুন ২২ অক্টোবরকে 'জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস' ঘোষণা করে সরকার। সেমিনারে সড়ক বিভাগের সচিব এম এন সিদ্দিক, বিআরটিএ চেয়ারম্যান মো. মশিউর রহমান, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মইনুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কী করে এত আনফিট গাড়ি, লক্করঝক্কর মার্কা গাড়ি রাস্তায় আসে। বাংলাদেশের এত অর্জন, সমৃদ্ধি, সেই দেশের রাজধানীতে কয়টা গাড়ির চেহারা সুন্দর আছে? এত অর্জনের দেশ ও বিপুল সম্ভাবনার দেশের রাজধানী ঢাকা শহরের এত গরিব গরিব গাড়ি গ্রামেও নেই। আপনারা দেশকে ছোট করছেন। ঢাকা শহরে এসে বিদেশিরা আমাদের লজ্জা দিচ্ছে আমাদের যানজটের জন্য, আমাদের ফিটনেস বিহীন গাড়ির জন্য।

উল্টো পথে যান চলাচল প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, অসাধারণ রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, অসাধারণ মানুষ, অসাধারণ আইনজীবী, অসাধারণ সাংবাদিক, আমরা কেউ রাস্তায় আইন মানতে চাই না। সাংবাদিক নয়, তবু সাংবাদিকের স্টিকার। কত যে সব ভুয়া। ভরে গেছে ভুয়ায়। জনপ্রতিনিধি নয়, এমপি নয়, তবু নীলক্ষেত মার্কা ভুয়া স্টিকারে চলেন তারা।

অতিবৃষ্টিতে ঢাকার জলাবদ্ধতা নিয়ে সমালোচনা করার আগে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তুলনা করার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, গত তিনদিন ধরে ঢাকায় জলজট ও যানজট সৃষ্টি হয়েছে। সে কারণে সমালোচনাও হচ্ছে, সেটা হোক। সমালোচনা আমি প্রত্যাশা করি। কিন্তু সার্বিক অবস্থাকে বিবেচনায় এনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তুলনা করে সমালোচনা করুন।

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সমন্বিতভাবে, পরিকল্পিতভাবে যানজটের বিরুদ্ধে, দুর্ঘটনার বিরুদ্ধে রাস্তার ও পরিবহনের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

 সেমিনারে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, পথচারী ও মোটরসাইকেলের দুর্ঘটনা বাড়ছে। হাইওয়ে ট্রাফিক পুলিশ ঠিকমতো কাজ করছে না। তবে কিছু উদ্যোগ প্রশংসনীয়। দেশের জনপ্রতিনিধিরা তাদের কাজগুলো করছেন না। আমার দাবি, নিরাপদ সড়কের জন্য জনপ্রতিনিধিরা যেন তাদের নিজ নিজ এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে প্রচারণা করেন। শুধু এক দিনের জন্য এ দিবস নয়। আমাদের মানসিকতাও পরিবর্তন করতে হবে। আসুন, আমাদের যার যার দায়িত্ব পালন করি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ