ঢাকা, বুধবার 25 October 2017, ১০ কার্তিক ১৪২8, ৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কেন সিরিয়া আক্রমণ করছে ইসরাইল?

২৪ অক্টোবর, আল-জাজিরা : ইসরায়েল এবং সিরিয়ার আন্তঃসীমান্ত সহিংসতা দুই দেশের নিরাপত্তা হুমকি বাড়িয়ে দিয়েছে। ইসরায়েল অধিকৃত সিরিয়ার গোলান মালভূমিতে রকেট হামলার জবাবে সিরিয়ার আর্টিলারি কামান লক্ষ্য করে পাল্টা হামলা চালায় ইসরায়েল।
আন্তঃসীমান্তের সহিংসতা উভয় দেশের নিরাপত্তার জন্য নতুন হুমকি নয়। সীমান্ত পেরিয়ে ইসরায়েলি গুপ্তহত্যা, বিমান ও রকেট হামলার ঘটনা নিয়মিতই ঘটে। আর এসব ঘটে আসছে ২০১১ সালে সিরীয় যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই।
সিরিয়ার সামরিক অবস্থান ও যুদ্ধ ঘাঁটিতে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বার বার হামলা চালিয়ে এলেও সিরিয়ার সরকারি বাহিনী কখনোই সরাসরি প্রতিশোধমূলক হামলা চালায়নি। যদিও ইসরায়েল বলছে, কিছু কিছু হামলার ঘটনা ইচ্ছাকৃতভাবেই করা হয়েছে।
২০১১ সালে সিরীয় যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে যে সহিংসতা শুরু হয় তা দুই দেশের সীমান্তেও আঁছড়ে পড়ে। সিরীয় সেনাবাহিনীর ওপর ইসরায়েল বিক্ষিপ্তভাবে হামলা চালায়; সিরীয় বাহিনী কিংবা বিদ্রোহীদের ছোড়া গোলা যখনই গোলান মালভূমিতে আঘাত হানে তার পরপরই পাল্টা আক্রমণ করে ইসরায়েল।
আকস্মিক হামলার ব্যাপারে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলছে, এজন্য সিরীয় সরকার দায়ী এবং সরকারি বাহিনীর অবস্থানে হামলা করে তারা প্রতিশোধ নিচ্ছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সিরিয়ার কেন্দ্রেও আঘাত হানা হয়। গত সপ্তাহে এক হামলার ব্যাপারে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, ‘আমাদেরকে যারা আক্রমণ করবে আমরাও তাদেরকে আক্রমণ করবো। আমরা বাড়তি কিছুই মেনে নেব না। তারা যদি আমাদের আক্রমণ করে; আমরা গোলা ফেরত দেব। আর এতে বেশি সময় নেয়া হবে না।’
সীমান্তের এই সহিংসতায় ইরান সমর্থিত যোদ্ধারাও অংশ নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের ইসরায়েল/ফিলিস্তিন বিষয়ক বিশ্লেষক ওফার জাজবার্গ। তবে সিরিয়ায় হামলার অভিযোগ সচরাচর স্বীকার করে না ইসরায়েল। তবে কুখ্যাত হামলার জন্য ইসরায়েলকে সন্দেহ করা হয়।
১৯৪৮ সাল থেকেই কৌশলগত যুদ্ধে লিপ্ত রয়েছে সিরিয়া-ইসরায়েল। ফিলিস্তিনি নিধন এবং আরব-ইসরায়ের যুদ্ধের পর এই যুদ্ধের সূত্রপাত হয়।
১৯৬৭ সালে ইসরায়েল সিরীয় ভূখণ্ড গোলান মালভূমির দখল নেয় এবং এই অঞ্চলের অন্যান্য জায়গাও দখলের চেষ্টা করছে। তবে সম্প্রতি হামলা-পাল্টা হামলা বৃদ্ধি পাওয়ায় তাদের এই যুদ্ধের পরিণতি অত্যন্ত কঠিন আকার ধারণ করেছে।
সিরীয় সরকারকে লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যোগসাজশের মাধ্যমে ইসরায়েল হামলা চালাচ্ছে বলে সিরিয়া বাশার আল আসাদ সরকার অভিযোগ করলেও ইসরায়েল তা অস্বীকার করছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, সীমান্তের সহিংসতার জন্য উভয় দেশই দায়ী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ