ঢাকা, বুধবার 25 October 2017, ১০ কার্তিক ১৪২8, ৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ডাবের জলের ৬টি উপকারিতা

ডাবের জল উচ্চরক্তচাপ কমিয়ে দেয় : গবেষণালব্ধ জ্ঞান থেকে জানা গেছে, ডাবের জল পান করলে মানবদেহে রক্ত সঞ্চালন ভালো হয়, উচ্চ রক্তচাপ কমে আসে এবং তখন হার্ট অ্যাট্যাকের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়। ডাবের জল আমাদের রক্তের অতিরিক্ত শর্করার ভাগ কমিয়ে দেয়।
ডাবেল জল দেহের মেদবহুলতা কমিয়ে দেয় : আপনি যদি দেহের মেদবহুলতা কমিয়ে নিতে আগ্রহী হন তবে ডাবের জল পান করুন। তবে মাঝে মধ্যে না, ডাবের জল আপনার রোজকার খাদ্যতালিকায় ঢুকিয়ে নিন। ডাবের জল পান করলে দেহে অতিরিক্ত মেদ জমে ওঠার ঝুঁকি একেবারেই নেই। মেদ হতে পারে এমন উপাদানহীন এই সুস্বাদু পানীয় পান করলে, পেট বেশ ভরে উঠেছে এমন অনুভব হয়।
দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় : ডাবের জল খাদ্যগুণে সমৃদ্ধ এটি পানীয়্ এই পানীয়তে প্রচুর ভিটামিন যেমন রিবোফ্লেভিন, নিয়াসিন, থিয়ামিন, পাইরিডোক্সাইন এবং ফোলেটস থাকে। ডাবের জলে সংক্রামক সর্দিজ্বর এবং জীবাণু সংক্রমণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার উপাদান থাকে। এই উপাদান দেহকে যে-কোনও ধরনের সংক্রমণ সংক্রান্ত অসুস্থতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে শক্তি জোগায়।
গর্ভবতী মহিলাদের জন্যে ডাবের জল পান করা উচিত : চিকিৎসকেরা গর্ভবতী মহিলাদের ডাবের জল পান করতে প্রস্তাব দেন। এই ডাবের জল পান করলে গর্ভবতী মহিলাদের কোষ্টবদ্ধতা, বুকজ্বলা এবং অজীর্ণ রোগ সেরে যায়।
ডাবের জল মুত্রাশয়ের রোগ সারিয়ে তোলে : ডাবের জলে মিনারেল, পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম থাকে সেজন্য এই জল পান করলে মূত্রাশয়ের অসুস্থতায় ভুগতে থাকা একজন রোগী আরোগ্য লাভ করেন। ডাবের জল প্রস্রাবের পরিমাণও বাড়িয়ে দেয়।
ডাবের জল ত্বকের জন্যেও ভালো : মুখের ত্বকে যদি ব্রণ থাকে কিংবা মুখের ত্বক যদি ঔজ্জ্বল্য হারায় তবে ডাবের জল মুখে লাগানো যেতে পারে। সারারাত মুখে ডাবের জল লাগিয়ে রেখে দিন। যেহেতু ডাবের জলের মধ্যে মেরামত করার ক্ষমতা আছে সেজন্য ডাবের জল হাতে এবং নখেও লাগানো যেতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ