ঢাকা, বুধবার 25 October 2017, ১০ কার্তিক ১৪২8, ৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জগন্নাথপুরে কুশিয়ারা নদীতে তলিয়ে গেল কদমতলা জামে মসজিদ

জগন্নাথপুর সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : কুশিয়ারা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনে নদীর তীরবর্তী সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের ছোট গ্রামের কদমতলা জামে মসজিদ, বসতবাড়ি, বনজসম্পদসহ আবাদি জমি ক্রমান্বয়ে নদীগর্ভে বিলিন হতে চলেছে।
এ নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনে কদমতলা গ্রামের একমাত্র দৃষ্টিনন্দন জামে মসজিদটির মিনার দাড়িয়ে রয়েছে আর মসজিদ ও ঈদগাহ ইতিমধ্যে কুশিয়ারার অতল গহবরে তলিয়ে গেছে। এ ছাড়াও বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধটি নদী ভাঙ্গনের শিকার হলে কদমতলা গ্রামবাসীর সম্মিলিত অর্থায়নে বিকল্প বাঁধ নির্মাণ করেন। বর্তমানে এ বাঁধটিও ভেঙ্গে যাওয়ায় নদীর পানি প্রবেশ করে এলাকার কৃষকের রোপা আমন ধান তলিয়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। গত কয়েক দিনের বৃষ্টিপাতে উজানের নেমে আসা পানি কুশিয়ারা নদীতে বৃদ্ধি পাওয়ায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির হতে পারে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।
ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে পানি প্রবেশ করে জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ও রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ছোট হাওর সহ উভয় এলাকার অগ্রহায়ণের আমন ফসল তলিয়ে যাবে। এলাকার কৃষকদের মধ্যে আবারও ফসল হরানোর শঙ্কায় হতাশা দেখা দিয়েছে। উপজেলার মধুপুর ও গঙ্গা নগর গ্রাম কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গনে বিলিন হয়ে গেছে। এ দুটি গ্রামের পাশ দিয়ে যাওয়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নদী ভাঙ্গনের হুমকির সম্মুখীন। যে কোন সয়ম ভেঙ্গে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।
প্রতিদিনই ভাঙ্গনের ভয়াবহ দৃশ্য হতবাক করে দিয়েছে। সেই সাথে অসহায় দরিদ্র পরিবারের করুন আর্তনাদে বিস্মিত করে তুলেছে। অবিলম্বে ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রদক্ষেপ গ্রহনের জন্য স্থানীয় সরকারের জনপ্রতিনিধি সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের সু-দৃষ্টি কামনা করেন গ্রামবাসী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ