ঢাকা, শনিবার 28 October 2017, ১৩ কার্তিক ১৪২8, ৭ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগে নিশ্চয়তা তারপর নির্বাচন: কাতালান নেতা

২৭ অক্টোবর, রয়টার্স : ‘স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে পর্যাপ্ত নিশ্চয়তা না পাওয়ায়’ আগাম আঞ্চলিক নির্বাচনের ডাক দেননি কাতালুনিয়ার প্রেসিডেন্ট কার্লেস পুজদেমন। স্বায়ত্তশাসিত কাতালুনিয়ায় গণভোটের পর পুজদেমনের স্বাধীনতা ঘোষণা এবং তার জবাবে স্পেন সরকারের গতকাল শুক্রবার থেকেই সেখানে সরাসরি শাসন চালুর হুমকি নিয়ে গত প্রায় একমাস ধরে অচলাবস্থা চলছে। যা নিরসনে পুজদেমন আগামী ২০ ডিসেম্বর আগাম আঞ্চলিক নির্বাচনের ডাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে খবর প্রকাশ করেছিল বার্সেলোনা-ভিত্তিক স্প্যানিশ দৈনিক পত্রিকা লা ভাঙগারডিয়া।
কিন্তু গত বৃহস্পতিবার বার্সেলোনায় আঞ্চলিক সরকারের প্রধানকার্যালয়ে এক ভাষণে পুজদেমন বলেন, আঞ্চলিক নির্বাচনের আয়োজন করলে সরাসরি শাসন আরোপ করা হবে না- এ সংক্রান্ত পর্যাপ্ত নিশ্চয়তা কেন্দ্রীয় সরকার তাদের দেয়নি। “যদি নিশ্চয়তা দেয়া হয় তবে আমি নির্বাচনের ডাক দিতে প্রস্তুত আছি। কিন্তু আজ পর্যন্ত নির্বাচনের ডাক দেওয়ার মত যথাযথ নিশ্চয়তা আমাদের দেয়া হয়নি। “এখন সব কিছুই কাতালান পার্লামেন্টের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে।”
স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকার এবং আন্তর্জাতিক মহলের যাবতীয় সতর্কতা উপেক্ষা করে স্বাধীনতা প্রশ্নে গত ১ অক্টোবর কাতালুনিয়ায় গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। গণভোটে বিপুল ব্যবধানে ‘হ্যাঁ’ জয়লাভ করেছে জানিয়ে স্বাধীনতার ঘোষণা দেন পুজদেমন। তার জবাবে কাতালুনিয়াকে সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে নেওয়ার হুমকি দেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাখয়।
স্পেন সরকারের হুমকির মুখে রাজনৈতিক নেতারাসহ প্রভাবশালী সব ব্যবসায়িক সমিতি এমনকি কাতালুনিয়ার পত্রপত্রিকাগুলোতেও কাতালান নেতা পুজদেমনকে তার নেতৃত্ব চলে যাওয়ার আগেই আঞ্চলিক নির্বাচন দেয়ার আহ্বান জানানো হয়। যদিও পুজদেমনের প্রশাসনের স্বাধীনতাপন্থিরা একতরফাভাবে স্বাধীনতা ঘোষণার জন্যও তাকে চাপ দিচ্ছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে স্পেনের উপপ্রধানমন্ত্রী সরায়া সায়েনজ দে সান্তামারিয়া এ বিষয়ে বলেন, “স্বাধীনতাকামী নেতাদের মুখোশ খুলে পড়ে তাদের আসল চেহারা বেরিয়ে এসেছে। তারা একটি স্বপ্নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, কিন্তু এখন প্রতারকের মত কাজ করছে।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ