ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 November 2017, ১৮ কার্তিক ১৪২8, ১২ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ঝালকাঠিতে লেপ-তোষক তৈরির ধুম কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছে

ঝালকাঠি শহরের তুলা পট্টিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে লেপ-তোষক তৈরীর কারিগররা

আতিকুর রহমান ঝালকাঠি থেকে: কার্তিকের সকালে শুরু হয়েছে শীতের আমেজ। সেই সাথে ধুম পরেছে লেপ- তোষক তৈরীর। অল্প কিছু দিন পরেই জেঁকে বসবে শীত। এবার শীতের আমেজ আগেই টের পাওয়ায় জনসাধারণ ভীড় জমাতে শুরু করেছে লেপ তোষকের দোকানে। তুলা, লেপের কাপড় ফোম এবং মজুরী গত বছরের তুলনায় এবার অনেক বেশী বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা।
নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় ঝালকাঠির তুলা পট্টিতে তুলা দিয়ে তৈরী লেপ বানানোর মজুরির পাশাপাশি বেড়েছে তুলা ও কাপড়ের দাম। এসব দোকানে দিন দিন বেড়েই চলছে লেপ-তোষক ক্রেতাদের ভীড়। পাশাপাশি ব্যস্ততা  বেড়েছে লেপ-তোষক তৈরী কারিগরদের। তুলা পট্টির প্রতিটি দোকানে এখন ১০/১৫টি লেপ তোষক তৈরী হচ্ছে। এদিকে শীত বস্ত্র বিক্রির দোকানেও ভীড় ও কেনাকাটা জমে উঠতে শুরু করেছে। একাধিক লেপ-তোষক দোকান মালিকরা জানান, বিগত বছরের তুলনায় এবার তুলার দাম বেশী। শিমুল তুলার কেজি গত বছর ছিল ৪০০ টাকা, এবার কেজি ৪৫০ টাকা। লেপের কাপড় গত বছর গজ বিক্রি হত ১৫০ টাকা, এবার ১৯০ টাকা।
এছাড়া ৪-৫ হাত মাপের তৈরী লেপ ১ টি গত বছর বিক্রি হয়েছে ১৬০০ টাকা এবার ১৯০০ টাকা। একই মাপের তোষক গত বছর ছিলো ২১০০টাকা, এবার ২৫০০ টাকা। এছাড়া নি¤œ মানের বিভিন্ন তুলা কেজি প্রতি গড়ে ২০/২৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছরের তুলনায় লেপ তৈরীর মজুরীও বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন কারিগররা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ