ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 November 2017, ১৮ কার্তিক ১৪২8, ১২ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বেগম জিয়া’র গাড়িবহরে হামলার সময় আহত স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সেঞ্জু মিয়া মারা গেছেন

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির চেয়ারপারসন  বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার সময় গুরুতর আহত স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা সেঞ্জু মিয়া মারা গেছেন। গতকাল বুধবার তিনি মারা যান।  স্বেচ্ছাসেবক দলের পক্ষ থেকে বিবৃতি পাঠানো হয়। তাতে বলা হয়, বিএনপি চেয়ারপার্সনের গাড়িবহরে আওয়ামী  সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হামলার সময় চট্টগ্রাম ডেবারপাড় ইউনিট বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এর সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেঞ্জু মিয়া গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মারা যান। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।
আওয়ামী সন্ত্রাসীদের এই পৈশাচিক ও বর্বরোচিত হামলায় সেঞ্জু মিয়ার মৃত্যুতে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু এবং সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূইয়া জুয়েল।
নেতৃদ্বয় বলেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতন ও হত্যাকান্ডের হাত থেকে প্রাণ নিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে বাধা দিতেই বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ীবহরে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায় আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। এই ন্যাক্কারজনক ও ঘৃণ্য হামলায় আবারো প্রমাণিত হলো দেশে  কোন আইনের শাসন নেই এবং ক্ষমতায় টিকে থাকতে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী এখন পুরোপুরি সন্ত্রাসনির্ভর হয়ে পড়েছে। সন্ত্রাসীদের হামলায় চট্টগ্রাম ডেবারপাড় ইউনিট বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এর সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেঞ্জু মিয়া গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণের ঘটনায় নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই।
নেতারা বলেন, আওয়ামী সন্ত্রাসীদের দ্বারা বিএনপি চেয়ারপার্সনের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।  সেঞ্জু মিয়ার আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যবর্গ ও আত্মীয়স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন নেতারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ