ঢাকা, শনিবার 4 November 2017, ২০ কার্তিক ১৪২8, ১৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শিক্ষার্থীদের পাঠক্রমের পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে গড়ে উঠতে হবে

স্ট্যান্ডার্ড স্কুল এন্ড কলেজের ১০ বছর পূর্তি ও প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণ দিচ্ছেন চ.বি. উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী -সংগ্রাম

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখ বিকাল ৫ টায় স্ট্যান্ডার্ড স্কুল এন্ড কলেজের ১০ বছর পূর্তি ও প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলণী অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কর্র্নেল (অবঃ) নজরুল ইসলাম খান।
মাননীয় উপাচার্য তাঁর ভাষণে প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীসহ উপস্থিত সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানান। তিনি বলেন, প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের এ মিলনমেলা তাদেরকে অতীত স্মৃতি রোমন্থন করার সুযোগ ঘটিয়ে দেয়। এ মিলনমেলার মাধ্যমে একদিকে যেমন তারা পারস্পরিক সুখ, দুঃখ, হাসি-আনন্দ ভাগাভাগি করার সুযোগ পায়, অন্যদিকে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীও তাদেরকে কাছে পেয়ে আনন্দে উদ্বেলিত হয়ে ওঠে। মাননীয় উপাচার্য বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের পাঠক্রমের পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। আমরা সেই শিক্ষা চাই, যে শিক্ষা পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে ইংলিশ মিডিয়ামে শিক্ষাব্যবস্থা অধিকতর সুদৃঢ় করেছে। তিনি বলেন, ইংলিশ মিডিয়ামের শিক্ষার্থীদের নির্ধারিত কারিকুলাম অনুসরণের পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষার বিষয়টিও অত্যন্ত গুরুত্ব ও তাৎপর্যপূর্ণ। মাননীয় উপাচার্য এ বিষয়টিকে অধিকতর গুরুত্ব দেয়ার জন্য সম্মানিত শিক্ষক-অভিভাবকদের আহবান জানান। প্রসঙ্গক্রমে মাননীয় উপাচার্য বলেন, মহাকালের মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর আহবানে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের মাধ্যমে এ দেশ স্বাধীন হওয়ায় এ দেশের মানুষ আজ শিক্ষা-দীক্ষায় আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে নিজেদের অবস্থান সমহিমায় তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা শিক্ষা, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সমন্বয় করে জাতিকে যে ‘শিক্ষা দর্শন’ উপহার দিয়েছেন তারই আলোকে আমাদের প্রজন্মের ছাত্র-ছাত্রীদের আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠে দেশ ও জাতির উন্নয়নে কাঙ্খিত ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। মাননীয় উপাচার্য উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের ১০ পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের সার্বিক সফলতা কামনা করেন। 
উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ পারভীন সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য জনাব সৈয়দ তাসেফ হাসনাইন, জনাব গোলাম রব্বানী ও জনাব মোহাম্মদ তারেক। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানের ছিলেন লিউন ক্রাউলী। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষিকা জনাব লীনা দাস।
অনুষ্ঠানে উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে যে ৬ জন শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক অবদান রেখেছেন তাঁদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ ৬ জন গুণী ব্যক্তিত্ব হলেন জনাব সিফাতুল আলম, জনাব শামীমা নাসরিন শেলী, জনাব লিউন ক্রাউলী, জনাব ফারজানা হক, জনাব বাবলা দাস এবং জনাব আসলাম ইকবাল। অনুষ্ঠান শেষে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে উক্ত স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক, অভিভাক এবং বিপুলসংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ