ঢাকা, শনিবার 4 November 2017, ২০ কার্তিক ১৪২8, ১৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খোকসার ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব এক আলোর বাতিঘর

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) : ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাবে শিক্ষকদের দক্ষতা উন্নয়নে আলোচনা সভা চলেছে -সংগ্রাম

মাহমুদ শরীফ, কুমারখালী (কুষ্টিয়া) : জেলার খোকসা উপজেলার ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব এ যেন আলোর এক অনন্য বাতিঘর। সমাজকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করার জন্য যারা মহান শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত সেই শিক্ষকদের একক ও স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব। পিছিয়ে পড়া অবহেলিত জনগোষ্ঠীর সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করে গড়ে তোলা, রাস্তা-ঘাট সংস্কার, অসহায় দরিদ্র মেয়েদের বিবাহে আর্থিক সহায়তা প্রদান, মেধাবী ও অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখতে বৃত্তির ব্যবস্থা, শীতবস্ত্র ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ, অসহায় এবং নিরুপায় অসুস্থ্যদের সাহায্য করা, পাঠাগার পরিচালনাসহ নানাবিধ সমাজসেবামূলক কর্মকা- বাস্তবায়নের মাধ্যমে এগিয়ে চলেছে ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব।
২০১৬ সালের জুলাই মাস থেকে যাত্রা শুরু করা এই অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানটির বর্তমানে সদস্য সংখ্যা প্রায় এক শতজন। ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাবের সভাপতি শিক্ষক আব্দুস সোবাহান এই প্রতিবেদককে জানান, সামাজিকতার পাশাপাশি শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্যই মূলতঃ ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব গড়ে তোলা হয়েছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই দিন দিন ক্লাবের কার্যক্রম বৃদ্ধির পাশাপাশি সুনাম কুড়াচ্ছে বলে ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব মতামত ব্যক্ত করেন।
জানা যায়, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুস সালেহীন ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা আকরাম হোসেন খান এই ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাব গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আর্থিকভাবে সহায়তা দিয়েছেন।
ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক আমজাদ হোসেন ও অর্থ সম্পাদক হাসানুল হক জানিয়েছেন, আমাদের সামাজিক কর্মকা- ও সুস্থ্য তৎপরতা আর সমাজ সেবামূলক কর্মকাণ্ড দেখে খুশি হয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুর রউফ ২০ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন। ক্লাবের যাবতীয় ব্যয় সদস্য শিক্ষকরাই বহন করে থাকেন বলে দপ্তর সম্পাদক কানু কুমার বিশ^াস জানান।
তিনি আরো বলেন, প্রত্যেক সদস্য তাদের বেতন থেকে ২০০-৫০০ টাকা করে দান হিসেবে জমা দেন। এই অর্থ থেকেই সব ব্যয় করা হয়।
সম্প্রতি বিকালে ভবানীগঞ্জ টিচার্স ক্লাবে যেয়ে দেখা যায়, বেশ কয়েকজন শিক্ষক ও সাধারণ শিক্ষিত যুবকরা বিভিন্ন বই ও পত্র পত্রিকা পাঠে মগ্ন রয়েছে।  বিকাল হলেই সদস্য শিক্ষকরা ক্লাবে ছুটে আসে, আড্ডার সাথে সাথে নিজেকে আগামীর জন্য করে নেয় প্রস্তুত।
কুষ্টিয়া জেলার খোকসা উপজেলা শেষ প্রান্তের এক প্রত্যন্ত পল্লীতে প্রতিষ্ঠিত এমন পাঠাগার স্থাপন করে সমাজ  সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করায়  সব ধরনের মানুষের কাছে সাধুবাদ পাচ্ছে এই শিক্ষক ক্লাবটি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ