ঢাকা, শনিবার 4 November 2017, ২০ কার্তিক ১৪২8, ১৪ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ড: মীর আকরামুজ্জামানের ইন্তিকালে জামায়াতের শোক

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড: মীর আকরামুজ্জামানের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান গতকাল শুক্রবার শোকবাণী দিয়েছেন।
 শোকবাণীতে তিনি বলেন, ড: মীর আকরামুজ্জামানের ইন্তিকালে জাতি একজন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদকে হারালো। তিনি তার মেধা ও যোগ্যতা কাজে লংংংািগিয়ে ভবিষ্যত প্রজন্মকে সৎ ও চরিত্রবান নাগরিক হিসাবে গড়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টা করেছেন। তিনি তার ছাত্র এবং সহকর্মীদের নিকট অত্যন্ত প্রিয় পাত্র ছিলেন।
তিনি বলেন, আল্লাহ তার জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাকে জান্নাতবাসী করুন। তিনি মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজন ও সহকর্মীগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আল্লাহ তাদের এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন।
ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের শোক: বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, মেজর (অব.) ড. মীর আকরামুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর (ভারপ্রাপ্ত) ও কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য এডভোকেট ড. হেলাল উদ্দিন।
গতকাল শুক্রবার দেয়া এক শোক বিবৃতিতে ড. হেলাল বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ও প্রশাসনে মরহুমের অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, তার মৃত্যুতে জাতি এক বরেণ্য শিক্ষাবিদ ও নিবেদিত প্রাণ  দেশ সচেতন মানুষকে হারালো। শোক বার্তায় ড. হেলাল মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান। তিনি বলেন, আল্লাহ যেন তাঁর নেক আমল সমূহ কবুল করে তাকে জান্নাতবাসী করেন এবং পরিবার ও আত্মীয় স্বজনকে সবর করার তৌফিক দান করেন। 
ড. মীর আকরামুজ্জামান মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অসংখ্য সেবা মূলক প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত থেকে সমাজ সেবায় নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও পরবর্তিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সুনামের সাথে অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং সর্বশেষ তিনি মানারাত বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্ট্রি বোর্ড সদস্য।
শিবিরের শোক: বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মীর আকরামুজ্জামানের ইন্তিকালে গভীর  শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। এক যৌথ শোকবার্তায় বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, কাজের ক্ষেত্রে সৎ, দক্ষ, কর্মঠ ও আদর্শ শিক্ষক হিসেবে তিনি সুনামের অধিকারী ছিলেন। তার ইন্তিকালে আমরা একজন শিক্ষাবিদ ও শিক্ষা সংস্কারের অকুতভয় সৈনিককে হারালাম। ইসলামী শিক্ষার প্রসারে তিনি আমৃত্যু প্রচেষ্টা চালিয়ে গেছেন। ইসলামী শিক্ষার ক্ষেত্রে দৃঢ় অবস্থান ও বিশ্লেষণ মানুষকে উদ্বূদ্ধ করেছে। শিক্ষা ক্ষেত্রে তার অবদান চির স্বরণীয় হয়ে থাকবে। দেশের ক্রান্তিকালে তার চলে যাওয়া জাতির জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। তার ইন্তিকালে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।
নেতৃদ্বয় মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন ও তার শোক-সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ