ঢাকা, রোববার 5 November 2017, ২১ কার্তিক ১৪২8, ১৫ সফর ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাকৃবিতে ২ স্কুলশিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর, সাংবাদিক লাঞ্ছিত

সংগ্রাম ডেস্ক : ময়মনসিংহে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের সাথে এসে ছাত্রলীগের হাতে মারধরের স্বীকার হয়েছে দুই শিক্ষার্থী। আহতরা জানান, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের শিবিরভেবে মারপিট করে। এ সময় মারধরের ছবি তুলতে গিয়ে লাঞ্ছিত হয়েছেন দৈনিক কালেরকণ্ঠের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি আবুল বাশার মিরাজ।

গতকাল শনিবার বাকৃবি ক্যাম্পাসে এসব ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে নিজেদের ভুল বুঝাবুঝির কারণে এমনটি হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। 

কোতোয়ালী মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন শাকের আহম্মেদ জানান, শনিবার দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস থেকে প্রথম গেইট সংলগ্ন এলাকায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল বহর নিয়ে শুভেচ্ছা মিছিল করে। তাদের মিছিলটি প্রথম গেটে আসলে সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী লাবিব (১৩) ভয়ে দৌঁড় দেয়। পরে ছাত্রলীগের কর্মীরা শিবির বলে লাবিবকে মারপিট করলে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। একই স্থানে কিছুক্ষণ পর আরেক নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী আশিক (১৫) ব্যাগ কাঁদে নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকলে তাকেও শিবির ভেবে মারধর করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।   

আহত দুই শিক্ষার্থী বলেন, “আমরা পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের সাথে ভার্সিটিতে এসেছিলাম। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা আমাদেরকে শিবির বলে মারধর করে। পুলিশ এসে তাদের হাত থেকে আমাদের রক্ষা করে।”

তারা আরও বলে, “রাজনীতি কী, আমরা তাও বুঝি না। তাবুও ছাত্রলীগের হামলার স্বীকার হলাম।”

দৈনিক কালেরকণ্ঠের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি আবুল বাশার মিরাজ বলেন, মারামারি হচ্ছে শুনে আসলে নেতাকর্মীরা ক্যামেরা বের করতে দেয়নি। ক্যামেরা বের করার চেষ্টা করলে তারা আমাকে ধাক্কা দেয়।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল শাখার সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন জনি বলেন, “এটা ছাত্রলীগের নোংরা রাজনীতি ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না।”

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল বলেন, “নিজেদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির কারণে এমনটি হয়েছে। পরবর্তীতে এমনটি যেন না হয়- সে জন্য ছাত্রলীগ কর্মীদের সর্তক করা হয়েছে।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ