ঢাকা, সোমবার 27 November 2017, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পিঁয়াজ রফতানি মূল্য বৃদ্ধি করায় কমেছে আমদানি ॥ বাজারে দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা

 

হিলি সংবাদদাতা : বাংলাদেশে পিঁয়াজ রফতানিতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবারো রফতানি মূল্য বৃদ্ধি করলো ভারত। প্রতি মেঃ টন পিঁয়াজের রফতানি মূল্য আড়াই’শ মার্কিন ডলার থেকে কয়েক দফায় বাড়িয়ে তা গত বৃহস্পতিবার ৮৫২ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করে ভারতের কৃষিজাত কাঁচা পণ্যের মূল্য নির্ধারণী সংস্থা (ন্যাফেড)। এতে করে দেশের বাজারে পিঁয়াজের মূল্য বেড়েছে প্রকার ভেদে প্রতি কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা।

কোন অজুহাত ছাড়াই বাংলাদেশে পিঁয়াজ রফতানিতে এলসির বিপরিতে টন প্রতি ডলার মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে ভারত। অক্টবরে প্রতি টন পিঁয়াজের রফতানি মূল্য আড়াই’শ মার্কিন ডলার থেকে সাড়ে ৩’শ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করে। এরপর দফায় দফায় তা বাড়িয়ে ৫’শ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করেছিল ভারত। সে অনুপাতে গত ২৩ নবেম্বর পর্যন্ত সে দামেই পেয়াজ আমদানি হয়ে আসছিল দেশে। কিন্ত হঠাৎ করে ভারতের পিঁয়াজ রফতানিকারকরা আমদানিকারকদের সাফ জানিয়ে দেয় ৮৫২ ডলারের নিচে তারা আর পিঁয়াজ রফতানি করবেনা। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে দিল্লি থেকে এ সংক্রান্ত একটি ফ্যাক্সবার্তা পাঠিয়ে দেয় ভারতের হিলি কাস্টমসে। আর শনিবার থেকে নতুন এ রফতানি মূল্য কার্যকর শুরু হয়েছে বলে জানান বাংলাহিলি স্থল বন্দরের ব্যবসায়ীরা।

হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতারা জানান, পিঁয়াজের দাম কেজি ২০-২৫ টাকা বেড়েছে তাই ক্রেতা সাধারণ কিনছেন কম। আমদানি কারক বাবলুর রহমান ও সাকিব রেজা, জানান, ভারত সরকার বাংলাদেশে পিঁয়াজ রফতানিতে মূল্য বৃদ্ধি করার কারণে বিপাকে পড়েছে দেশের পিঁয়াজ আমদানীকারকরা। এমনকি পূর্বের খোলা এলসি গুলোও পুনরায় মূল্য নির্ধারণ করতে হচ্ছে তাদেরকে। 

অপরদিকে আমদানি কারকরা বলছেন, বেশি ডলারে ভারত থেকে কোন পণ্য আমদানি করলে পরবর্তিতে এলসির বিপরিতে ডলার মূল্য কমে গেলে, অতিরিক্ত ডলার তারা আর ফেরত দেয়না। এতে করে একদিকে যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয় আমদানি কারকরা, অপরদিকে অতিরিক্ত ডলার চলে যায় ভারতে।

হিলি কাস্টমস রাজস্ব কর্মকর্তা, ফকর উদ্দিন জানান, তারা ২৩ নবেম্বর পর্যন্ত ৫০০ ডলারে পিঁয়াজের এ্যাসেসম্যান করেছেন, আর এখন করছেন ৮৫২ ডলারে। নবেম্বর মাসে গত ২৩ দিনে ১১ হাজার ১৪৫ মেট্রিক টন পিঁয়াজ আমদানি হয়েছে এ বন্দর দিয়ে। আর দাম বাড়ার পর গতকাল শনিবার এবন্দর দিয়ে মাত্র ১১টি ট্রাকে ২২০ মেঃ টন পিঁয়াজ আমদানি হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ