ঢাকা, সোমবার 27 November 2017, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাহিজা খানম ঝুনুর ইন্তিকাল

জাসাস-জাতীয় নির্বাহী কমিটি’র সহ-সভাপতি বুলবুল ললিতকলা একাডেমি-বাফা’র প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী, বাফার সাবেক নৃত্যশিক্ষক, অধ্যক্ষ, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত নৃত্যশিল্পী নৃত্যমাতা রাহিজা খানম ঝুনু গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৭টায় রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেন। (ইন্নলিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।
একুশে পদকপ্রাপ্ত এ শিল্পীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব গাজী মাজহারুল আনোয়ার, বিএনপি’র সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক চিত্রনায়ক আশরাফ উদ্দিন আহমেদ উজ্জল, জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাস এর সভাপতি ড. মামুন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক হেলাল খান, সাংগঠনিক সম্পাদক অভিনেতা চৌধুরী মাজহার আলী শিবা শানু প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বলেন, রাহিজা খানম ঝুনুর মৃত্যুতে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের এক উজ্জল দীপ্তমান নক্ষত্র হারাল-যা কোনদিন পূরণ হবার নয়। তিনি ছিলেন বাংলাদেশের নৃত্যু জগতের জননী। বাংলাদেশের নৃত্যাঙ্গনের সাথে তার নাম ওতপ্রোতভাবে জড়িত। নেতৃবৃন্দ মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
জানাযা অনুষ্ঠিত : নয়াপল্টনস্থ বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে মরহুমার লাশ নিয়ে আসা হয় বাদ যোহর। এ সময় মরহুমার লাশে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাসসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিএপি’র মহাসচিব বলেন, নৃত্যুমাতা রাহিজা খানম ঝুনুর মৃত্যুতে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক আন্দোলনের একজন নিবেদিত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বকে হারাল। তিনি শুধু শিল্পীই নয় সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অন্যতম সংগঠক-বিশেষ করে নৃত্যাঙ্গনে তার সৃষ্টিকর্মের বহু শিল্পী প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন। জাতি তাকে চিরদিন তার সৃষ্টিকর্মের জন্য স্মরণ করবে।
সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপি চেয়ারপার্সন এর উপদেষ্টা গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আব্দুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, বিএনপি’র প্রান্তিক জনসংখ্যা উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ও জাসাস এর সাবেক সভাপতি এম এ মালেক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক চিত্রনায়ক আশরাফ উদ্দিন আহমেদ উজ্জল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল সালাম আজাদ, সহ-সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক কণ্ঠশিল্পী মনির খান বিএনপি’র সদস্য জাসাস-এর সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক হেলাল খান, সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, শায়রুল কবির খানসহ জাসাস-ঢাকা মহানগরের সকল থানা ও ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ