ঢাকা, শুক্রবার 1 December 2017, ১৭অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগামী সপ্তাহে পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহারের ইঙ্গিত হারিরির

 

৩০ নবেম্বর, লা স্টাম্পা : আগামী সপ্তাহে পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করতে পারেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি। বুধবার নিজের প্রেস দপ্তর থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, সবকিছু ‘অনুকূল’ আছে এবং যদি এমনই থাকে তাহলে নিজের সিদ্ধান্ত বাতিল করতে পারেন তিনি। চলতি মাসের প্রথমদিকে সৌদি আরব সফরে গিয়ে সেখান থেকে এক টেলিভিশন বার্তায় হঠাৎ পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছিলেন সাদ। এতে লেবাননে রাজনৈতিক সঙ্কট তৈরি হয় এবং দেশটি সৌদি আরব ও এর প্রধান আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের পারস্পরিক দ্বন্দ্বের ঘূর্ণাবর্তে পড়ে যেতে পারে, এমন আশঙ্কা দেখা দেয়। গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট মিশেল আউনের সঙ্গে বৈঠকের পর পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করতে রাজি হয়েছিলেন সাদ। আলোচনার পথ খুলতেই পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহারে রাজি হয়েছেন বলে জানিয়েছিলেন তিনি। সাদের চাওয়া, লেবাননের সবাই আঞ্চলিক সংঘাত থেকে দূরত্ব বজায় রাখুক। এতে লেবাননের শক্তিশালী শিয়া গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর দিকেই ইঙ্গিত করা হয়েছে। গোষ্ঠীটি ইরানের সমর্থন নিয়ে আরব বিশ্বে শত্রুতা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ সৌদি আরবের।  নবী মোহাম্মদের (সাঃ) জন্মদিন উপলক্ষে বুধবারের এক অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে সাদ বলেন, “আপনারা যেমন শুনেছেন সবকিছু তেমনই অনুকূলে, আর এ অবস্থা যদি বজায় থাকে খোদার ইচ্ছায় আমরা আগামী সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন ও পার্লামেন্টের স্পিকার নাবিহ বেররিকে নিয়ে পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহারের ঘোষণা দিব।”

এর আগে একইদিন প্রেসিডেন্ট আউন বলেছিলেন, সাদ ‘নিশ্চিতভাবেই’ প্রধানমন্ত্রী থাকবেন এবং কয়েকদিনের মধ্যেই লেবাননের রাজনৈতিক সঙ্কটের অবসান ঘটবে। লা স্টাম্পা সংবাদপত্রে প্রকাশিত উদ্ধৃতিতে ইতালি সফরে থাকা আউনের বলেছিলেন, “সরকারের ভিতরে ও বাইরে থাকা সব রাজনৈতিক শক্তির সঙ্গে আলোচনা শেষ করেছি আমরা। বিস্তৃত একটি সমঝোতা হয়েছে।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ