ঢাকা, শুক্রবার 1 December 2017, ১৭অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশ ব্যাংক খুলনা কার্যালয় থেকে  টাকা পাচারের হোতারা এখনও অধরা

 

খুলনা অফিস : বাংলাদেশ ব্যাংক খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে নতুন নোট পাচারের সঙ্গে জড়িত কাউকেই এখনো সনাক্ত করা যায়নি। ব্যাংকের অভ্যন্তরীণ তদন্ত, সিসি ক্যামেরার ফুটেজে এ ঘটনার সঙ্গে সিবিএ নেতাদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলেও এ ব্যাপারে ব্যাংকের কর্মকর্তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বিষয়টি নিয়ে ব্যাংকের ভেতরে-বাইরে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

গত ১৫ নবেম্বর বেনাপোল চেকপোস্টের নোম্যান্সল্যান্ড এলাকা থেকে ৩০ বান্ডিল ২ টাকার নতুন নোট এবং ৪৮ বান্ডিল ৫ টাকার নতুন নোট উদ্ধার করা হয়। এর আগে ২৩ অক্টোবর ১০ বান্ডিল ২ টাকার নোট উদ্ধার করে বিজিবি। এগুলো ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে নেয়া হয়েছিলো।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, বিজিবি ও বেনাপোল পুলিশের তদন্তে নতুন নোটগুলো খুলনা থেকে নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়। সরাসরি নতুন নোট উদ্ধার ও পাচারের ঘটনায় ব্যাংকে তোলপাড় তৈরি হয়। এরপরই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গর্ভনর খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়ের নির্বাহী পরিচালককে ঢাকায় ডেকে পাঠান। দ্রুত এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। এরপরই টাকা পাচারের বিষয়টি তদন্ত করতে খুলনা কার্যালয়ের মহাব্যবস্থাপক (পরিদর্শন) অসীম কুমার মজুমদারকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। 

ব্যাংক থেকে নতুন নোট পাচার, তদন্ত কমিটি গঠনের তারিখ ও সদস্যদের নাম, নবেম্বর মাসের প্রথম ১২ দিনের নতুন নোটের সরবরাহ ও বিতরণের পরিমাণ, তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার তারিখসহ বেশ কিছু বিষয়ে তথ্য জানতে গত ২২ নবেম্বর নির্বাহী পরিচালক ও মহাব্যবস্থাপক বরাবর তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করা হয়। এ বিষয়ে খুলনা কার্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক ও মহাব্যবস্থাপকের (প্রশাসন) স্বাক্ষাৎ চেয়ে আবেদন করা হয়। পরবর্তীতে লিখিত প্রশ্নও জমা দেয়া হয়। 

কিন্তু গতকাল মঙ্গলবার ব্যাংকের পক্ষ থেকে উপ-ব্যবস্থাপক তানভীর আহম্মেদ সিদ্দিকি জানান, ব্যাংকের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের অনুমোদন ছাড়া এসব তথ্য দেয়া যাবে না। কর্মকর্তারাও কোনো বক্তব্য দিবেন না।

ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নতুন নোট পাচারের সঙ্গে সিবিএ নেতাদের একটি অংশ জড়িত। ব্যাংকের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ১২ নবেম্বর বিকেল ৩টার দিকে একটি চটের বস্তায় করে সুজয় নামে এক ক্লাব বয় টাকা নিয়ে বের হচ্ছে। প্রথমে বস্তাটি সিড়ির কাছে রাখা হয়। এরপর সুজয় বস্তাটি প্রধান ফটক দিয়ে বের করে নিয়ে যায়। একইভাবে ১৭ জুলাই বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে সুজয়কে সিমেন্টের ব্যাগে করে টাকা নিতে যেতে দেখা গেছে। এর আগে ৪ এপ্রিল ১২টা ৩৫ মিনিট থেকে ১২টা ৪০ মিনিটেও একইভাবে টাকা পাচারের দৃশ্য ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। গত রোজার ঈদ থেকে এ পর্যন্ত কয়েকবার বস্তায় করে টাকা বের করা হয়েছে।

ব্যাংক কর্মকর্তারা জানান, সিবিএ নেতাদের সঙ্গে সরাসরি রাজনৈতিক দলগুলোর যোগাযোগ রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা বা টাকা দিতে অস্বীকার করলে তারাই রাজনৈতিক নেতাদের দিয়ে ফোন করান। মূলত এজন্য তদন্ত প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখে না এবং তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া যায় না।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংক সিবিএর সভাপতি শরীফ মোড়ল বলেন, নতুন টাকা উদ্ধার বা পাচারের বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। সুজয় নামের একজনকে আগে চিনতাম, তার সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নেই।

প্রসঙ্গত, জনশ্রুতি রয়েছে, ভারতে হেরোইনসহ বিভিন্ন নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবনে বাংলাদেশী ২ ও ৫ টাকার নোট জনপ্রিয়। ভারতের বিভিন্ন স্থানে ২ টাকার এই নোট ৫ রূপিতে বিক্রি হয়।

ইবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ

তবিবুর রহমান আকাশ, ইবি সংবাদদাতা : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আজ শুক্রবার শুরু হচ্ছে। চলবে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। উৎসব মুখর পরিবশে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য নেয়া হয়েছে নিñিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ইতোমধ্যে পরীক্ষার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে কর্তৃপক্ষ। 

এবছর বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ২২৭৫টি আসনের বিপরীতে ৮৭ হাজার ৩ শত ৬৮ টি আবেদন ফরম উত্তোলন করেছে। পাঁচটি অনুষদের অধীন আটটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে ৩৯ জন ছাত্র-ছাত্রী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। প্রতিদিন ৪ শিফটে সাতটি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ।

ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। সবত্র বিরাজ করছে সাঁজসাঁজ রব। ইতোমধ্যে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে আসতে শুরু করেছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান বলেন,‘স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত পরীক্ষা গ্রহণে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। উৎসব মুখর পরিবেশে পরীক্ষা গ্রহণে আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ক্যাম্পাস সিসি ক্যামেরায় মনিটরিং করা হচ্ছে। আশাকরি সকলের সহযোগিতায় সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েব সাইট রঁ.ধপ.নফ ভিজিট করে জানতে পারবে।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ