ঢাকা, শুক্রবার 1 December 2017, ১৭অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পাবনায় সাংবাদিকদের বিক্ষোভ  ভূমিমন্ত্রীর সংবাদ বর্জন

 

পাবনা সংবাদদাতা : সাংবাদিকদের উপর ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলে যুবলীগ নেতা শিরহান শরীফ তমাল ও তার ক্যাডার বাহিনীর হামলা প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পাবনায় কর্মরত সাংবাদিকরা। তাৎক্ষনিক মিছিলটি পাবনা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে আব্দুল হামিদ সড়ক অবরোধ করে ট্রাফিক মোড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার দাবি করে ভূমিমন্ত্রীর সকল সংবাদ বর্জন ও সাংবাদিকদের কালোব্যাজ ধারণের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। এ সময় অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও ভূমিমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে শ্লো-গান দেয়া হয়। এ সময় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়। পাবনা সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি বিটিভি প্রতিনিধি আব্দুল মতীন খানের সবাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কামাল সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক আঁখিনূর ইসলাম রেমন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক উৎপল মির্জা, এবিএম ফজলুর রহমান, পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান স্বপন, শহিদুর রহমান শহিদ প্রমুখ। এদিকে এক বিবৃতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও ভূমিমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন পাবনা টেলিভিশন ও অনলাইন সাংবাদিক সমিতির সভাপতি কাজী মাহবুব মোর্শেদ বাবলা, পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপিত হাবিবুর রহমান স্বপন, পাবনা সংবাদপত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ। বিবৃতিতে তারা বলেছেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের উপর হামলা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। বুধবার সন্ধ্যায় পাবনার পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পাবনা জেনারেল হাসপাতালে আহত সাংবাদিকদের দেখতে যান। এসময় তিনি বলেন, হামলাকারীরা যেই হোক না কেন তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে। উল্লেখ্য, বুধবার (২৯ নবেম্বর) বিকেলে পাবনার রূপপুরে প্রধানমন্ত্রীর আগমনের স্থানীয়প্রস্তুতির সংবাদ সংগ্রহকালে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমাল ও তার ক্যাডার বাহিনী পিটিয়ে সময় টিভি ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের পাবনা প্রতিনিধি সৈকত আফরোজ আসাদ, এটিএন নিউজের পাবনা প্রতিনিধি রিজভী রাইসুল ইসলাম জয়, ডিবিসি নিউজের পাবনা প্রতিনিধি পার্থ হাসান ও ক্যামেরাপার্সন মিলন হোসেনকে আহত করে। এ সময় তারা ল্যাপটপ ও ক্যামেরা ভাঙচুর এবং মোবাইল ফোন ও টাকা লুট করে। আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ