ঢাকা, সোমবার 4 December 2017, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দখলকৃত জেরুসালেমকে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি সহিংসতাকে উস্কে দেবে-----আরব লীগ

৩ ডিসেম্বর, গাল্ফ নিউজ/ দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট : দখলকৃত জেরুসালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিতে যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনও ধরনের পদক্ষেপ চরমপন্থা ও সহিংসতাকে উস্কে দেবে বলে সতর্ক করে দিয়েছে আরব লীগ। মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সংবাদমাধ্যম। 

আরব লীগের মহাসচিব আহমেদ আবুল ঘেইত বলেন, ‘আজ আমরা পরিস্কারভাবে বলছি, এ ধরনের কার্যক্রম ন্যায়সঙ্গত নয়। এটা শান্তি বা স্থিতিশীলতা আনবে না বরং চরমপন্থাকে উস্কে দেবে ও সহিংসতা বাড়াবে।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুসালেমকে ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দিতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্র সরকারের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ কথা বলা পর আরব লীগের মহাসচিব এমন হুশিয়ারি দিলেন।

জেরুসালেমকে ফিলিস্তিন তাদের ভবিষ্যত রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে চায়। আর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও শহরটিকে ইসরায়েলের অংশ হিসেবে মেনে নেয়নি। শহরটি মুসলিম, খ্রিস্টান ও ইহুদি ধর্মের মানুষদের জন্য পবিত্র স্থান। শহরটির ব্যাপারে ট্রাম্পের এমন পরিকল্পনার কঠোর সমালোচনা করেছে ফিলিস্তিন।

ফিলিস্তিনের ক্ষমতাসীন দল পিএলও বলেছে, জেরুজালেমের ওপর যে কোনও ধরনের আঘাত আসলে তা হবে ‘আগুন নিয়ে খেলা’র শামিল। মুসলিম-খ্রিস্টান ও ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র ভূমিকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দিলে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়া ব্যাহত হবে বলেও মন্তব্য করেছে তারা। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চলতি মাসের ৬ তারিখেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পশ্চিম জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপন করতে পারেন। এই পদক্ষেপ বাস্তবায়িত হলেই জেরুজালেম ইসরায়েলি রাজনীতি হিসেবে মার্কিন স্বীকৃতি পাবে। 

তবে ফিলস্তিন কর্তৃপক্ষ বলছে, দখলকৃত পূর্ব জেরুসালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী করার দাবিকে পাশ কাটিয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে তার প্রভাব হবে ধ্বংসাত্মক। ফিলিস্তিনি মুক্তি আন্দোলনের সংগঠন-পিএলও মহাসচিব সায়েবে এরেকাত বলেন, জেরুজালেম শুধু ফিলিস্তিনের জন্যই নয়, সারা বিশ্বের মুসলিম ও খ্রিস্টানদের জন্যও স্পর্শকাতর বিষয়। মার্কিন প্রশাসন জেরুজালেমের ঐতিহাসিক তাৎপর্য বুঝতে ব্যর্থ হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ