ঢাকা, সোমবার 4 December 2017, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর প্রদর্শিত জীবন আদর্শই অশান্ত পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত করতে পারে -অধ্যাপক মুজিব

সারা বছরই রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর জীবন এবং চরিত্র নিয়ে ব্যাপকভাবে আলোচনা করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান।
গত শনিবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)কে আল্লাহ তায়ালা গোটা মানবজাতির শান্তি, কল্যাণ ও মুক্তির জন্য দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন। তিনি গোটা মানবজাতির জন্য রাহমাতুল্লিল আ’লামীন। তার প্রদর্শিত জীবন আদর্শই বর্তমান অশান্ত পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত করতে পারে। তার প্রদর্শিত আদর্শই সারা বিশ্বের মানুষকে মুক্তি ও কল্যাণের পথ দেখাতে পারে।
তিনি বলেন, মহানবী হযরত মুহা¤মাদ (সা.)-এর উপর আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন সর্বশেষ আসমানী কিতাব পবিত্র কুরআন নাজিল করেছেন। পবিত্র কুরআনই তার আদর্শ। পবিত্র কুরআনের বাস্তব নমুনা রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর গোটা জীবন। রাসূলুল্লাহ (সা.) ছিলেন মানবজাতির শিক্ষক ও পদ প্রদর্শক।
তিনি আরো বলেন, ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রসহ সকল ক্ষেত্রেই রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর আদর্শ অনুসরণ এবং অনুকরণের মধ্যেই নিহিত আছে মানবজাতির মুক্তি। তাকে খণ্ডিতভাবে অনুসরণ করে কোন কল্যাণ লাভ করা কিংবা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন সম্ভব নয়। আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন ছাড়া কারো পক্ষে জান্নাতে প্রবেশ করা সম্ভব হবে না।
তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর জীবনাদর্শ অনুসরণ ও অনুকরণ করার জন্য তাঁর জীবন এবং চরিত্র ব্যাপকভাবে অধ্যয়ন করা ও আলোচনা করা প্রয়োজন। অত্যন্ত যুক্তিপূর্ণ ভাষায় প্রজ্ঞার সাথে বুদ্ধিবৃত্তিক উপায়ে রাসূলের জীবনাদর্শ মানুষের সামনে পেশ করা মুসলমানদের পবিত্র দায়িত্ব। রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর জীবনাদর্শ নিয়ে আলাপ-আলোচনা কোন বিশেষ দিন বা মাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে সারা বছরই তা নিয়ে আলোচনা হওয়া উচিত।
রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর জীবনাদর্শ ব্যাপকভাবে অধ্যয়ন করে তা নিয়ে আলোচনা করে বাস্তব জীবনে তা অনুসরণ ও অনুকরণ করে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ