ঢাকা, সোমবার 4 December 2017, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠায় মুহাম্মদ (সাঃ) এর আদর্শ প্রতিষ্ঠার কোন বিকল্প নেই -মাওলানা আব্দুল হালীম

সিরাতুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ২ ডিসেম্বর শনিবার রাজধানীর একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আবদুল হালিম -সংগ্রাম

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালীম বলেছেন, আইয়্যামে জাহেলিয়াতের সময় ছিল ঘোর অন্ধকারে নিমজ্জিত একটি সভ্যতা। বর্বর, বেদুঈন, যাযাবররা ছিল, শিক্ষা ও তমুদ্দিনের আলো থেকে বঞ্চিত একটি জাতি। অন্যায় জুলুম ও অনৈতিকতার সয়লাব চারিদিকে, যেখানে ভুলুণ্ঠিত হচ্ছিল মনুষ্যত্ব প্রতিনিয়ত। তখনো মানবজাতি আদিম জাহেলিয়াতের ঘুম থেকে জাগেনি। ঠিক সেই সময় অরাজকতার ঘুটঘুটে অন্ধকারে আকস্মিকভাবে জ্বলে উঠলো আলোক মশাল। সভ্যতার সূর্যোদয়ের দায়িত্ব নিয়ে ৫৭০ খৃস্টাব্দের ১২ই রবিউল আওয়াল পৃথিবীতে আবির্ভূত হলেন সমগ্র মানবজাতির মুক্তির দূত হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। তাঁর পবিত্র ছোঁয়ায় নবুওয়াতের মাত্র ২৩টি বছরে আরবরা বিনির্মাণ করলো এক নতুন পৃথিবী। জীবনের ক্ষতস্থান থেকে যে উৎকট দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল তা রাসূল (সাঃ) এর পরশে পরিবর্তিত হয়ে সুবাসিত আলোকবর্তিকায় পরিণত হল। তাই সামাজিক অবক্ষয় রোধ, অন্যায়-জুলুম ও অনৈতিকতার হাত থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করে ইনসাফপূর্ণ, শান্তিময় ও সমৃদ্ধশালী করার জন্য আমাদেরও রাসূল (সাঃ) এর আদর্শকে অনুসরণ করতে হবে।
গত শনিবার সকাল ১১টায় রাজধানীর একটি মিলনায়তনে পবিত্র সীরাতুন্নবী (সাঃ) উপলক্ষে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের উদ্যোগে "ব্যক্তি ও সমাজ গঠনে রাসূল (সাঃ)" শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। মহানগরী আমীর (ভারপ্রাপ্ত) ও কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য এডভোকেট ড. হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরোও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগরী কর্মপরিষদ সদস্য শামছুর রহমান, মুহাম্মদ কামাল হোসাইন, মহানগরী মজলিসে শুরা সদস্য মাওলানা রুহুল কুদ্দুস, আব্দুর রহীম, মাওলানা আমীরুল ইসলাম। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পূর্ব সভাপতি সোহেল রানা মিঠু, ঢাকা মহানাগরী দক্ষিণ সভাপতি শাফিউল আলম প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে আরো বলেন, যে বিস্ময়কর মহাশক্তির মাধ্যমে রাসূল (সাঃ)  বিপ্লব সাধন করেন, যা দিয়ে পাল্টে দিয়েছিলেন সমগ্র পৃথিবীকে, পাল্টে দিয়েছিলেন ঘুনে ধরা সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের হৃদয়কে তা হলো মহাগ্রন্থ আল কুরআন। সেই আল কুরআন আজও আমাদের মাঝে বিদ্যমান। আমাদের দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণ ও মুক্তির জন্য মহাগ্রন্থ আল কুরআন নির্দেশিত পথে জীবন পরিচালনা করতে হবে। ন্যায়বিচার ও মানুষের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি হিসেবে আল-কুরআনকে প্রতিষ্ঠা করার সংগ্রামে অংশগ্রহণ করতে হবে।
মাওলানা হালীম আরোও বলেন, রাসূলের রেখে যাওয়া সেই শান্তি প্রতিষ্ঠার আদর্শ থেকে মুসলমানরা বিমুখ হওয়ায় বর্তমান বিশ্বে অশান্তির আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে। ইসলাম বিরোধীদের হাতে ইরাক, আফগান, ফিলিস্তিন, আরাকান, কাশ্মীরসহ পৃথিবীর সর্বত্র আজ লাখো লাখো মুসলমান নিহত হচ্ছে। অন্যায়, অবিচার আর বর্বরতার সীমা আইয়ামে জাহেলিয়াতের সময়কেও ছাড়িয়ে গেছে। তাই অশান্ত এই পৃথিবীতে শান্তিপ্রতিষ্ঠায় মুহাম্মদ (সাঃ) এর মহান আদর্শ প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই। বর্তমানে যারা রাসূলের রেখে যাওয়া আদর্শ কায়েমের মাধ্যমে পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠার আন্দোলন করে যাচ্ছেন তাদের পথ কুসুমাস্তীর্ণ নয়। কাফের ও মুসলিম নামধারী মুনাফিকদের ষড়যন্ত্র এখনো অব্যাহত রয়েছে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে সকল জুলুম-নির্যাতন ও ষড়যন্ত্র মুকাবেলা করেই আমাদেরকে সত্য ও শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য ইসলামী আন্দোলনকে বেগবান করে বিজয়ের মঞ্জিলে নিয়ে যেতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে ড. হেলাল বলেন, বর্তমান শিক্ষা ব্যাবস্থায় রাসূলের আদর্শকে বাদ দিয়ে সেক্যুলার শিক্ষা ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে ফলে শিক্ষার্থীরা নিজেদের মানবতার বন্ধু হিসেবে গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয়েছে। তিনি শিক্ষা ব্যবস্থায় রাসূলের সীরাত ও আদর্শকে পুনরায় প্রতিষ্ঠা করার আহ্বান জানান। তিনি আরোও বলেন, উগ্র ও চরমপন্থা ইসলাম কায়েমের পথে অন্যতম বাধা বা অন্তরায়, তিনি রাসূলের সীরাত থেকে শিক্ষা নিয়ে সকলকে উগ্রপন্থা পরিহার করার আহ্বান জানান। ড. হেলাল আরোও বলে, রাসূল (সাঃ) মানুষের অধীকার রক্ষায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। বর্তমান ক্ষয়িষ্ণু সভ্যতার সামাজিক অবক্ষয় ও পতন রোধ করে মানবতাবোধ জাগ্রত করার জন্য, মানুষের অধীকার নিশ্চিত করার জন্য আমাদের রাসূল (সাঃ) শিক্ষা ও আদর্শ সমাজে বাস্তবায়ন করতে হবে।
শাহজাহানপুর থানা : জামায়াতে ইসলামী শাহাজাহানপুর থানার উদ্যোগে পবিত্র সীরাতুন্নবী (সাঃ) উপলক্ষে থানা ভারপ্রাপ্ত আমীর আবদুল জব্বারের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন, থানা নায়েবে আমীর মাওলানা গিয়াস উদ্দীন, সরওয়ার জাহান, এম মোর্শেদ, মাহমুদুর রহমান  ও মহসিন প্রমুখ।
মতিঝিল থানা : সকাল ৯টায় জামায়াতে ইসলামী মতিঝিল থানার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মহানগরী কর্মপরিষদ সদস্য ও থানা আমীর মুহাম্মদ কামাল হোসাইনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগরী ভারপ্রাপ্ত আমীর ও কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরার সদস্য এড. ড. হেলাল উদ্দিন। থানা সেক্রেটারি মুতাছিম বিল্লাহর পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন থানা নায়েবে আমীর সৈয়দ সিরাজুল হক, থানা কর্মপরিষদ সদস্য  সামছুল  বারী, মুনসুর ইকবাল। উপস্থিত ছিলেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য শেখ এনামুল কবির, জসিমুল হক পাটোয়ারি, ওয়ার্ড সভাপতি, এম করিম, জয়নাল আবেদীন, নাজিম উদ্দিন প্রমুখ।
ডেমরা থানা : ডেমরা থানার উদ্যোগে স্থানীয় কনফারেন্স হলে ইসলামী সাংস্কৃতিক  অনুষ্ঠান ও সীরাত মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ইসলামী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সীরাত মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন ডেমরা থানা আমীর মুহাম্মদ হাফিজুর রহমান। আলোচনা করেন মাওলানা মাওলানা আবদুল কাদের, মাওলানা আবু তালেব, মাওলানা মিজানুর রহমান, মেসবাহ উদ্দিন হেলাল প্রমুখ।
সবুজবাগ থানা : সবুজবাগ থানার উদ্যোগে সকালে স্থানীয় একটি মিলনায়তনে সীরাত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর আবু নাবিলের সভাপতিত্বে ও থানা সেক্রেটারি আবু মাহীর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা হাফিজুর রহমান শামীম, নাসির উদ্দিন মজুমদার, ওমর ফারুক, বি আর রহমান, ছাত্রনেতা আল আমীন প্রমুখ।
খিলগাঁও থানা : খিলগাঁও থানার উদ্যোগে সকালে স্থানীয় একটি মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর সগীর বিন সাইদের সভাপতিত্বে ও থানা সেক্রেটারি এস এম জুয়েলের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা আব্দুর রহমান সাজু, মোহাম্মদ আলী ভুট্টো, আবু ইসাহাক প্রমুখ।
কোতোয়ালি থানা : কোতোয়ালি থানার উদ্যোগে স্থানীয় কনফারেন্স হলে মাহে রবিউল আওয়ালের সীরাত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর আহসান হাবিবের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায়  উপস্থিত ছিলেন, জামায়াত নেতা আহসান হাবিব, আবুল হাসেম, শাহ আলম  প্রমুখ।
নিউমার্কেট থানা : নিউমার্কেট থানার উদ্যোগে সকালে স্থানীয় একটি মিলনায়তনে  আলোচনা সভা ও সীরাত মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। থানা আমীর মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ ফরিদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা মিজানুর রহমান, মেহেদী হাসান সানি প্রমুখ।
ধানমন্ডি থানা: ধানমন্ডি থানার উদ্যোগে স্থানীয় কনফারেন্স হলে থানা আমীর এডভোকেট জসীম উদ্দিন তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট লেখক সিরাজ মান্নান, কর্মপরিষদ সদস্য মুস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় এই সীরাত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা সেলিমুর রহমান। আরো উপস্থিত ছিলেন আব্দুল আওয়াল মিয়া, শাহেদ আলম নান্নু, আবুল হোসেন প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ