ঢাকা, রোববার 10 December 2017, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মচারীদের চাকরি স্থায়ী করার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার : ২০ বছর ধরে অস্থায়ী অবস্থায় থাকা গ্রামীণ ব্যাংকের চতুর্থ শ্রেণির চাকুরীজীবীরা চাকুরী স্থায়ী করার দাবি জানিয়েছেন। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে তারা এদাবি জানায়।
তারা জানায় দীর্ঘ ২০ বছর ধরে দৈনিকভিত্তিতে কাজ করানো হচ্ছে তাদের। ব্যাংকের অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীদের মতো কোন সুযোগ সুবিধা দেয়া হয় না। সংবিধান অনুযায়ী তাদের মৌলিক অধিকার খর্ব করা হচ্ছে। বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে তারা অধিকার পেতে চান।
গ্রামীণ ব্যাংক অস্থায়ী কর্মচারী সমিতির ব্যানারে সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়। সেখান থেকে ৫ দফা দাবি উত্থাপন করা হয়। দাবিগুলো হলো- গ্রামীণ ব্যাংকে কর্মরত সকল অস্থায় পিয়নদের চাকুরী স্থায়ী করতে হবে, সকলের বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধ করতে হবে, গ্রামীণ ব্যাংকে কর্মরত অস্থায়ী কর্মচারীদের একটানা ২৪  ঘণ্টা ডিউটি থেকে অব্যাহতি দিতে হবে, যাদের চাকুরীচ্যুত করা  হয়েছে তাদের বকেয়া বেতনসহ চাকুরী পুনর্বহাল করতে হবে এবং গ্রামীণ ব্যাংক শ্রম আইন মানছে না। তাদেরকে শ্রম আইনের আওতায় আনতে হবে। অন্যথায়-জানুয়ারি থেকে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার ঘোষণা দেয়া হয় সাংবাদিক সম্মেলন থেকে।
সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা মো. নাইমুল হাসান জুয়েল, সুলতান উদ্দিন আহমদ, কামরুল হাসান, রাজিকুর জামান রতন, মো. শুকুর মাহমুদ, আজিজুল হক বাবুল, ইরাদুল ইসলাম প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ