ঢাকা, মঙ্গলবার 12 December 2017, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে আরো চারটি মানহানি মামলা

সংগ্রাম ডেস্ক : দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে গতকাল সোমবার দেশের বিভিন্ন স্থানে এক হাজার কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের হয়েছে। খুলনায় ১৬নং ওয়ার্ড যুব মহিলা লীগের সভাপতি এড. নাজিয়া আহমেদ (বর্না), মানিকগঞ্জে জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবদুস সালাম, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার এবং গাইবান্ধায় জেলা যুবলীগ সভাপতি সরদার মোঃ শহীদ হাসান লোটন মামলা দায়ের করেন। আমাদের খুলনা অফিস, সিলেট ব্যুরো ও মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা এ খবর জানান।
খুলনা অফিস : দৈনিক আমার দেশ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সারাদেশে সিরিজ মামলা দায়ের শুরু হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার গতকাল সোমবার বিজ্ঞ নালিশী মামলার আমলী আদালত ‘ক’ অঞ্চল খুলনায় ১৬ নং ওয়ার্ড যুব মহিলা লীগের সভাপতি এডভোকেট নাজিয়া আহমেদ (বর্না) বাদি হয়ে এক হাজার কোটি টাকার মানহানী (দন্ডবিধির ১২৩(ক), ১২৪(ক), ৫০১, ৫০২, ৫০৫ ধারায়) এ মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় ঘটনার দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত অজ্ঞাত ব্যক্তিদেরকেও আসামী করা হয়েছে। এতে খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি কাজী আবু শাহীনসহ ছয়জন আইনজীবীকে স্বাক্ষী হিসেবে রাখা হয়েছে। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. আমিরুল ইসলাম বাদি পক্ষের বক্তব্য শুনে মামলাটি আমলে নিয়ে খুলনা সদর থানার ওসিকে তদন্তপুর্বক আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, মামলার ১ নং আসামী মাহমুদুর রহমান গত ১ ডিসেম্বর ঢাকাস্থ জাতীয় প্রেসক্লাবে ঐ দিনের যে কোন সময় বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল (বিডিসি) কর্তৃক আয়োজিত ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে শত শত মানুষের সামনে এবং ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের সামনে বলেন- ‘বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্র নয়, শুধুমাত্র ভূ-খন্ড আর জনগণ থাকলেই স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হয় না, বাংলাদেশ এখন ভারতের কলোনী, শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমকে হত্যা করেছে, কবর দিয়েছে, প্রেস ক্লাবে শেখ মুজিবের ম্যুরাল থাকতে পারে? পারে না? বর্তমান সরকার অবৈধ সরকার, দিল্লীর তাবেদার সরকার। একটি রাষ্ট্রের চারটি স্তম্ভ থাকে, ১) পার্লামেন্ট, ২) জুডিসিয়ারী, ৩) এক্সিকিউটিভ ৪) গণমাধ্যম। উক্ত চারটি স্তম্ভেরই কবর রচনা করেছে বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার। বর্তমানে বাংলাদেশ নামের কোন রাষ্ট্রের অস্তিত্ব নাই। বাংলাদেশকে আর যাই বলা যাক, রাষ্ট্র বলা যাবে না। জমি থাকতে পারে, জনগণ থাকতে পারে সার্বভৌমত্ব নাই।’ একথা গুলি বাদি You Tube-G Hokkotha.com, Peaceful TV, Breaking News, Bangladesh Affairs, লিংকগুলোর মাধ্যমে দেখেছে ও শুনেছে। উক্ত লিংকগুলোতে মনগড়া, তঞ্চকতাপূর্ণ ও বানোয়াটীভাবে শেখ হাসিনার কুকর্ম ও ষড়যন্ত্র ফাঁস করে ওপেন চ্যালেঞ্জ মাহমুদুর রহমানের (Bangladesh Affairs লিংক), জাতীয় বিপ্লব সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে উপস্থাপিত বক্তব্য (Peaceful TV লিংক)। শেখ মুজিবুর রহমান ও টিউলিপ সম্পর্কে সম্পাদক মাহামুদুর রহমানের দেয়া বক্তব্য (Peaceful TV লিংক)। টিউলিপ সিদ্দিকীয় বক্তব্যের উচিৎ জবাব দিলেন মাহামুদুর রহমান (Basherkella লিংক)।
আসামী বলেন, শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনী, শাসক শ্রেণির পরিবারের সদস্য টিউলিপ সিদ্দিকী যিনি লন্ডনে থাকে ইংল্যান্ডের পার্লামেন্টের সদস্য। তিনিও গণমাধ্যম ও গণতন্ত্রকে হত্যার মানসিকতা থেকে মুক্তি পাননি। কারণ তিনি শেখ মুজিবেরই জীন বহন করেন। সুতরাং ভিডিওগুলো দেখে নিশ্চিত হওয়া যায় আসামী উল্লেখিত মিথ্যা বক্তব্য প্রকাশ করে ভুল, মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট, উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত, উস্কানী ও ষড়যন্ত্রমূলক এবং স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ নিয়ে এবং বাংলাদেশের অস্তিত্ব নিয়ে কটুক্তি ও রাষ্ট্রদ্রোহীতার অপরাধের প্রমাণ পাওয়া যায়।
আসামী সকল নীতি নৈতিকতা ও শ্রদ্ধাবোধ ভুলে গিয়ে জাতির জনক বাংলাদেশের স্থাপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বর্তমান সরকারও বঙ্গবন্ধুর নাতনী টিউলিপ সিদ্দিকীকে নিয়ে কটূক্তি করে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে এবং স্বাধীন বাংলাদেশের অস্তিত্বে অবিশ্বাস করে ও আঘাত করে সমগ্র বাঙ্গালী জাতির বিরুদ্ধে, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে চরম অবজ্ঞা, রাষ্ট্রদ্রোহমূলক ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করে মানসম্মানে আঘাত করে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রকে ১নং আসামি অস্থিতিশীল করেছেন এবং আসামী তার সামনে উপস্থিত সাংবাদিক ও তার অনুসারীদের সরকার ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামের হুমকি ও সংগ্রামে অংশগ্রহণের জন্য উস্কানী প্রদান করেছেন। যা রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল। এ ধরনের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য উপস্থাপনের ফলে ব্ঙ্গবন্ধুর পরিবার তথা প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং বাদীর রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সুনাম ও সম্মানহানি হয়েছে। যাতে বাদির মানহানি হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ ও আওয়ামী লীগ এর সাথে বাদীর মানসম্মান জড়িত। যাতে বাদির অনির্নীয় মানহানি হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আর্থিক মানদন্ডে বাদির আনুমানিক এক হাজার কোটি টাকার সম্মান ক্ষুণ্ন হয়েছে। স্বাক্ষীগণ ঘটনা সম্পর্কে সম্পূর্ণ অবগত আছে। বিস্তারিত সাক্ষী প্রমাণ দিয়া বাদি অত্র মোকদ্দমা প্রদান করতে সক্ষম হবে বলে মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়েছে।
যা দেশের সকল ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে। তাছাড়া স্যোসাল মিডিয়ায় তার বক্তব্য দেখে ও শুনে বাদি এডভোকেট নাজিয়া আহমেদ (বর্না) এ মামলা দায়ের করেন। মামলার বাদি পক্ষে ফাইলিং আইনজীবী খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও মহানগর যুবলীগের আহবায়ক এডভোকেট সরদার আনিছুর রহমান পপলু।
মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে নতুন করে সিরিজ মামলায় এমইউজে খুলনার নিন্দা : দৈনিক আমার দেশ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সারাদেশে সিরিজ মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন (এমইউজে) খুলনার নেতৃবৃন্দ। এমইউজে খুলনার সভাপতি মো. আনিসুজ্জামান, সহ-সভাপতি এহতেশামুল হক শাওন, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আবুল হাসান হিমালয়, কোষাধ্যক্ষ অঅব্দুর রাজ্জাক রানা, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজের নির্বাহী সদস্য এহতেশামুল হক শাওন, সাবেক সহ-সভাপতি ড. মো. জাকির হোসেন, সাবেক নির্বাহী সদস্য শেখ দিদারুল আলমের সোমবারে দেয়া এক যৌথ বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভিন্নমত দলন ও বাক স্বাধীনতা হরণের হীন উদ্দেশ্যে নতুন করে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দেয়া হচ্ছে।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, জাতীয় প্রেস ক্লাবে একটি অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যের জেরে গত কয়েক দিনে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় অন্তত ছয়টি মামলা দেয়া হয়েছে। এসব মামলার বাদি শাসক দল আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা। সর্বশেষ গতকাল খুলনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মানহানির যে অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে মামলা করা হচ্ছে তা সংশ্লিষ্ট আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। আইনানুযায়ী কেবলমাত্র যার মানহানি হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে তিনিই একটি অভিযোগ আনতে পারেন। অন্য কারো অভিযোগ বা একই অভিযোগে একাধিক মামলা আমলে নেয়ার সুযোগ নেই। অথচ বিভিন্ন জেলায় যথেচ্ছভাবে মামলা করা হচ্ছে এবং তা বিবেচনায় নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হচ্ছে। এটা মত প্রকাশের স্বাধীনতার ও নগ্ন হস্তক্ষেপ এবং কণ্ঠরোধের হীন চেষ্টা ছাড়া কিছুই নয়। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে হয়রানিমূলক এসব মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।
খুলনা মহানগর বিএনপির নিন্দা ও প্রতিবাদ : দৈনিক আমার দেশ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে খুলনার সিএমএম আদালতে কথিত রাষ্ট্রদ্রোহ ও মানহানির অভিযোগে মামলা দায়েরের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন খুলনা মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ। এ ঘটনাকে তারা বিরোধী মত দমনে প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজনীতির নিকৃষ্ট নজির হিসেবে আখ্যায়িত করেন।
এক বিবৃতিতে মহানগর বিএনপি নেতারা বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই, মুক্ত মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই, জনগনের ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। সরকারের জুলুম নির্যাতন ও দুঃশাসনের বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক পন্থায় প্রতিবাদের সকল পথ আইন শৃঙ্খলা বাহিনী লেলিয়ে দিয়ে রুদ্ধ করে রাখা হয়েছে।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়, কতিপয় আওয়ামী লীগ নেতা তাদের আত্মপ্রচারণা ও নাম জাহিরের জন্য এ ধরনের মামলার সস্তা পথ বেছে নিয়েছে। বিবৃতিতে অবিলম্বে এ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।
বিবৃতিদাতারা হলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও সাবেক এমপি এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও কেসিসির মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম প্রমুখ।
সিলেটে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা
সিলেট ব্যুরো : দৈনিক ‘আমার দেশ’ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে গতকাল সোমবার দুপুরে ৫’শ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেছেন সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার। সিলেট চিফ মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে রাহাত এ মামলা দায়ের করেন।
গত পহেলা ডিসেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত একটি সেমিনারে মাহমুদুর রহমান বাংলাদেশ ও একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রতি চরম অবজ্ঞাসূচক বক্তব্য রেখেছেন। তার এসব বক্তব্যে সংক্ষুব্ধ হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন সাধারণ কর্মী হিসাবে তিনি মামলাটি দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন।
তিনি আরও বলেন, আদালত মামলাটি আমলে নিয়েছেন এবং তদন্ত শেষে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানিয়েছেন। এসময় সিনিয়র আইনজীবী এবং  সিলেট সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আশফাক আহমদও বক্তব্য রাখেন।
রাহাত তরফদারের পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট একেএম শফি উদ্দিন আহমদ, এডভোকেট কিশোর কুমার কর, এডভোকেট ময়নুল ইসলাম, এডভোকেট আব্দুল কুদ্দুস, এডভোকেট রিপা সিনহা, এডভোকেট ফৌজিয়া, অ্যাডভোকেট ইমরান প্রমুখ।
মানিকগঞ্জেও মাহমুদুর রহমানের নামে মামলা
মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করায় দৈনিক  আমারদেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের নামে মানিকগঞ্জে আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের মামলা। সোমবার দুপুরে জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড.আব্দুস সালাম  বাদী হয়ে মানিকগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২ নং  আদালতে এই মামলাটি দায়ের করেন। মামলার সিআর নং-৬৪১ (মা:)/২০১৭।
গাইবান্ধা, শীর্ষনিউজ : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ পরিবারের বিরুদ্ধে কটূক্তি ও অবজ্ঞা করায় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।
সোমবার গাইবান্ধা আমলী আদালতে গাইবান্ধা জেলা যুবলীগ সভাপতি সরদার মো শাহীদ হাসান লোটন একটি মামলা দায়ের করেন। (সিআর ৫৮৩/১৭) মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ১ ডিসেম্বর ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল আয়োজিত গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে গণ মাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক এক সেমিনারে অংশ নেন মাহমুদুর রহমান।
মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারক আগামী ৩০ জানুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আসামী মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন বলে বাদির আইনজীবী অ্যাড নিরঞ্জন কুমার ঘোষ জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ